• সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মৃত্যুপথযাত্রী সন্তানকে বাঁচাতে অসহায় পিতার আর্তনাদ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৪ আগস্ট ২০২৩, ১৬:৪৫
মৃত্যুপথযাত্রী সন্তানকে বাঁচাতে অসহায় পিতার আর্তনাদ
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মৃত্যুপথযাত্রী শিশু আয়েশা বিনতে রোদেলা (ছবি : অধিকার)

মৃত্যুপথযাত্রী সন্তানকে বাঁচাতে সমাজের বৃত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন মোহাম্মদ ফরহাদ আইদিদ নামে এক গাড়িচালক পিতা। পাঁচ বছর বয়সী আয়েশা বিনতে রোদেলা সপ্তাহ খানেক ধরে জ্বর-ঠাণ্ডায় আক্রান্ত রয়েছে।

গত বুধবার (২ আগস্ট) তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজধানীর মহাখালী এলাকার আয়েশা মেমোরিয়াল হসপিটালে ভর্তি করানো হয়। এরপর চিকিৎসকরা শিশুটিকে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জ্বর থেকে খিচুনি এবং ঠাণ্ডায় বুকে কফ জমে নিউমোনিয়া হয়েছে বলে জানান। এছাড়া তার শরীরে ডেঙ্গুর ইনফেকশন রয়েছে বলেও হাসপাতাল থেকে জানানো হয়।

এ পরিস্থিতিতে তার হার্টের অবস্থাও ভালো নয় জানিয়ে চিকিৎসকরা দ্রুত শিশুটিকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়ার পরামর্শ দেন। এরপর থেকে শিশুটি লাইফ সাপোর্টে থেকে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে।

অসুস্থ শিশুর পিতা মোহাম্মদ ফরহাদ আইদিদ বলেন, আমার সন্তান ডা. মনিরের তত্ত্বাবধানে আছে। তার অবস্থা ক্রমে খারাপের দিকে যাচ্ছে। অর্থাভাবে আমি তাকে বাঁচাতে পারছি না। চোখের সামনে বাচ্চাটা মারা যাচ্ছে। তবে চিকিৎসকরা সাধ্য মতো চেষ্টা করছেন।

কান্না জড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, আমার বাচ্চাকে লাইফ সাপোর্টে রাখলে দিনে ৭২ হাজার টাকার বেশি বিল হয়। যে খরচ আমার মতো একজন দরিদ্র মানুষের পক্ষে বহন করা প্রায় অসম্ভব।

নিজের সন্তানের জীবন বাঁচাতে আবেদন জানিয়ে এই গাড়িচালক বাবা বলেন, সমাজের বৃত্তবানদের কাছে আমি আমার সন্তানের জীবন বাঁচানোর জন্য সাহায্য চাচ্ছি। আপনাদের যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী আমার সন্তানের জন্য সাহায্য পাঠান।

মোহাম্মদ ফরহাদ আইদিদের ফেসবুক আইডি থেকে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট লিঙ্কসহ প্রকাশ করা হলো।

মৃত্যুপথযাত্রী সন্তানকে বাঁচাতে অসহায় পিতার আর্তনাদ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড