• বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গভীর রাতে ঘুম ভাঙলে আবার ঘুমাবেন যেভাবে

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

২৩ অক্টোবর ২০১৯, ২০:০০
ঘুম
মাঝ রাতে ঘুম ভাঙলে মোবাইল ব্যবহার (ছবি : সংগৃহীত)

গভীর বা মাঝরাতে কোনো কারণে ঘুম ভেঙে গেলে পরে আর সহজে ঘুম আসতে চায় না। এভাবে ঘুম ভেঙে যাওয়ার জন্য কিছু কিছু কারণ জড়িতও থাকতে পারে। যেমন ধরুন- অসুস্থতা, অস্থিরতা, মানসিক চাপ, ক্লান্তি, মনের ভেতর কোনো বিষয় ঘুরপাক খাওয়া এবং অতিরিক্ত শারীরিক চাপ প্রভৃতি কারণে ঘুম ভেঙে যেতে পারে।

যে কারণেই ঘুম ভেঙে যাক না কেন, তারপর অনেক সময় পার হয়ে গেলেও আর সহজে ঘুম আসে না। এমন পরিস্থিতিতেও পুনরায় ঘুমিয়ে পড়া সম্ভব। তবে এজন্য কী কী কাজ করা থেকে বিরত থাকতে হবে তা জানা সবারই জরুরি। 

চলুন দেখে নেওয়া যাক, পুনরায় ঘুমাতে কী কী বিষয় এড়িয়ে চলা উচিত-

নিজেকে শান্ত রাখা : হঠাৎ করে ঘুম ভেঙে অনেকেই বেশ অশান্তি বোধ করে থাকেন। কেউ কেউ আবার বিছানাতেই ছটফট করা শুরু করে দেন। ফলে যা-ও ঘুম আসার সম্ভাবনা থাকে সেটাও চলে যায়। এ বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন জানাচ্ছে, যে কোনো কারণে গভীর রাতে হঠাৎ ঘুম ভেঙে যেতে পারে। সে সময় নিজেকে শান্ত রাখতে হবে। সোজা হয়ে শুয়ে নাকের সাহায্যে গভীরভাবে নিঃশ্বাস নিতে হবে ও প্রশ্বাস ফেলতে হবে। পাশাপাশি আরামদায়ক ভঙ্গীতে শুয়ে একদিকে মনোযোগ স্থির করতে হবে। হতে পারে সেটা কবিতা মনে করা বা সংখ্যা গণনা করার চেষ্টা। এইভাবে কিছু সময় কাটালে অল্প সময়ের মাঝেই ঘুম চলে আসবে।

মোবাইল ফোন থেকে দূরে থাকা : হঠাৎ করে গভীর বা মাঝরাতে ঘুম ভেঙে গেলে অনেকেই মোবাইল হাতে তুলে নেয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের নোটিফিকেশনগুলো দেখতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। আবার নতুন কোনো মেইল আসল সেটাও চেক করেন। তাতে করে বহু সময় কেটে যায়, একই সঙ্গে ঘুম ঘুম ভাবও কেটে যায়। এ কারণে রাতে যখনই ঘুম ভেঙে যাক না কেন মোবাইল ব্যবহার করা যাবে না। হার্ভার্ডের গবেষণা মতে, এই কারণেই বেশিরভাগ সময় রাতে ঘুম ভেঙে গেলে পরে আর ঘুম আসতে চায় না।

প্রোগ্রেসিভ মাসল রিলাক্সেশন : যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশনের পরামর্শ অনুযায়ী রিলাক্সেশন টেকনিক শরীর ও মনের চাপকে কমাতে কাজ করে। এতে করে উভয় প্রশান্তি পায় এবং দ্রুত ঘুম চলে আসে। মাসল রিলাক্সেশনের জন্য প্রথমে শরীরের পেশীগুলোকে শক্ত করতে হবে। যাকে বলা হয় কন্ট্রাকশন। এই অবস্থায় ৫ সেকেন্ড থাকতে হবে। এরপর ধীরে পেশীগুলোকে স্বাভাবিক অবস্থায় আনুন। এইভাবে সাত থেকে দশবার করার পর দ্রুত ঘুম চলে আসবে।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড