• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

এইচএসসির ফল পুনর্নিরীক্ষণে ফেল থেকে পাস ৫৫৫ জন

এইচএসসি পরীক্ষার্থী
আনন্দে উল্লাসিত এইচএসসি পরীক্ষার্থী (ছবি : সংগৃহীত)

২০১৯ সালের উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষার ফল পুনর্নিরীক্ষণে সারাদেশে নতুন করে মোট ৫৫৫ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৬৬ জন।

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) বিকালে দেশের সকল শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটে এই ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

ঢাকা বোর্ড : প্রকাশিত পুনর্নিরীক্ষণের ফল অনুযায়ী, ঢাকা বোর্ডে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৪৫ জন পরীক্ষার্থী। এবং ফেল থেকে পাস করেছে ২৮৯ জন। এছাড়া ১ হাজার ৫৮৬ জনের আগের ফল পরিবর্তন হয়েছে।

রাজশাহী বোর্ড : ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফল পুনর্নিরীক্ষণে রাজশাহী বোর্ডের ৬৬ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৪ জন। 

যশোর বোর্ড : পুনর্নিরীক্ষণের পর যশোর বোর্ডের ২৩ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ জন।

কুমিল্লা বোর্ড : কুমিল্লা বোর্ডের ৬২ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৬ জন। 

সিলেট বোর্ড : ফল পুনর্নিরীক্ষণে সিলেট বোর্ডের ১৬ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ জন।

দিনাজপুর বোর্ড : দিনাজপুর বোর্ডের ২৯ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ জন। এছাড়া ফল পরিবর্তন হয়েছে ১৩৬ জনের।

চট্টগ্রাম বোর্ড : এইচএসসি পরীক্ষার উত্তরপত্র পুনর্নিরীক্ষণে চট্টগ্রাম বোর্ডে ৩৬৫ জন পরীক্ষার্থীর ফল পরিবর্তন হয়েছে এবং ফেল থেকে পাস করেছে ৪৭ জন এবং নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪ জন। 

বরিশাল বোর্ড : পুনর্নিরীক্ষণের পর বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে ৮ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন।

মাদ্রাসা বোর্ড : এইচএসসি পরীক্ষার পাশাপাশি মাদ্রাসা আলিম পরীক্ষার উত্তরপত্র পুনর্নিরীক্ষণের ফলও প্রকাশ করা হয়েছে। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১৫ জন পরীক্ষার্থী ফেল থেকে পাস করেছে এবং নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ জন। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কামাল উদ্দিন বলেন, ‘পুনঃনিরীক্ষণ শেষে গ্রেড পরিবর্তন হয়েছে ৬৩ শিক্ষার্থীর।’ 

উল্লেখ্য, এ বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার গড় পাসের হার ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে ৪৭ হাজার ২৮৬ জন শিক্ষার্থী। এছাড়া ৮টি সাধারণ বোর্ডে পাসের হার ছিল ৭১ দশমিক ৮৫ শতাংশ এবং ৮ শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে মোট ৪১ হাজার ৮০৭ জন শিক্ষার্থী।

ওডি/এসএসকে

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড