• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধাওয়ান-স্মিথের আক্ষেপের দিনে জয় পেল ভারত

  ক্রীড়া ডেস্ক

১৮ জানুয়ারি ২০২০, ০২:০১
ধাওয়ান, স্মিথের আক্ষেপের দিনে ভারতের জয়
জয় উদযাপন করছেন ভারতীয় খেলোয়াড়রা (ছবি : দ্য কুইন্ট)

টপ অর্ডারদের বানানো মঞ্চে ঝড় তুলেছেন লোকেশ রাহুল। ভারতকে নিয়ে গেছেন রানের পাহাড়ে। স্বাগতিক ওপেনার শিখর ধাওয়ানের মতো নব্বইয়ের ঘরেই আউট হয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান স্টিভেন স্মিথও। তাদের এমন আক্ষেপের দিনে সহজেই জয় পেল বিরাট কোহলির দল।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৩৬ রানের সহজ জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা এনেছে টিম ইন্ডিয়া। ভারতের দেওয়া ৩৪০ রান তাড়া করতে নেমে পাঁচ বল বাকি রেখেই ৩০৪ রানে গুটিয়ে যায় অজিরা।

শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টস হেরে বেটিংয়ে নেমে উদ্বোধনী জুটির দৃঢ়তায় ভালো শুরু পায় ভারত। ওপেনার রোহিতের শুরুটা একটু ধীরে হলেও ধাওয়ান প্রথম থেকেই ছিলেন আক্রমণাত্মক।

দ্রুত এগিয়ে যাওয়া ৮১ রানের জুটিটা ভাঙেন অ্যাডাম জ্যাম্পা। দারুণ এক ডেলিভারিতে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন রোহিতকে। 

আগের ম্যাচে চারে নেমে ব্যর্থ হওয়া বিরাট কোহলি এবার তিনে এসেই রানের দেখা পেয়েছেন। অধিনায়কের সঙ্গে শত রানের জুটি উপহার দেন ধাওয়ান। দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যাওয়া বাঁহাতি ওপেনার ফেরেন মাত্র চার রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। কেন রিচার্ডসনের শর্ট বলে ব্যক্তিগত ৯৬ রানে আউট হন ধাওয়ান। 

প্রমোশন পেয়ে চারে নেমে যথারীতি ব্যর্থ শ্রেয়াস আয়ার। আগের ম্যাচে তিনে খেলা লোকেশ রাহুল এবার নামেন পাঁচে। তার মারমুখী ইনিংসে সাড়ে তিনশ রানের কাছে যায় ভারতের সংগ্রহ।

এ দিকে শুরু থেকেই ভুগছিলেন স্টিভেন স্মিথ। রানের জন্য সংগ্রাম করতে দেখা যায় তাকে। এমনকি সময় লাগছিল অ্যারন ফিঞ্চেরও। ধীরে ধীরে জমে যায় সাবেক ও বর্তমান অধিনায়কের এই জুটি। রবীন্দ্র জাদেজার বলে স্টাম্পড হয়ে ফিঞ্চের বিদায়ে ভাঙে ৬২ রানের শক্ত জুটি।

গত ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নামতে হয়নি মার্নাস লাবুশেনর। দ্বিতীয় ম্যাচে ক্রিজে এসেই প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে খোলেন রানের খাতা। টেস্টে অসাধারণ সময় কাটানো তরুণ ব্যাটসম্যান এখানেও ছিলেন সাবলীল।

যদিও বাজে এক শটে ভাঙে তাদের ৯৬ রানের জুটি। জাদেজার বলে মিড অফে সহজ ক্যাচ তুলে দেন লাবুশেন। তবে অ্যালেক্স কেয়ারি ও স্মিথের ব্যাটে অল্প অল্প করে এগিয়ে যেতে থাকে অস্ট্রেলিয়া। যদিও মাত্র চার বলে দুই ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে ভারতকে ম্যাচ ফেরান কুলদীপ যাদব।

কেয়ারির সফট ডিসমিসালের পর বাজে শটে ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো নব্বইয়ের ঘরে আউট হন ফিরেন স্মিথও। ১০২ বলে তিনি সংগ্রহ করেন ৯৮ রান।

অপর দিকে শুরুটা খরুচে হলেও শামির শেষটা হয় বেশ ভালো। পরপর দুই বলে বোল্ড করেন অ্যাশন টার্নার ও প্যাট কামিন্সকে। অজি লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সিরিজে ব্যবধান কমিয়েছে ভারত।

ইনিংসে ৭৭ রানে ৩ উইকেট নেন শামি। তাছাড়া দুটি করে উইকেট নিয়েছেন কুলদীপ জাদেজা, ও নবদীপ সাইনি। আগামী রবিবার (১৯ জানুয়ারি) বেঙ্গালুরুতে হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত : ৫০ ওভারে ৩৪০/৬ (রোহিত ৪২, ধাওয়ান ৯৬, কোহলি ৭৮, আইয়ার ৭, রাহুল ৮০, পান্ডে ২, জাদেজা ২০*, শামি ১*; কামিন্স ১০-১-৫৩-০, স্টার্ক ১০-০-৭৮-০, রিচার্ডসন ১০-০-৭৩-২, জ্যাম্পা ১০-০-৫০-৩, অ্যাগার ৮-০-৬৩-০, লাবুশেন ২-০-১৪-০)

অস্ট্রেলিয়া : ৪৯.১ ওভারে ৩০৪ (ওয়ার্নার ১৫, ফিঞ্চ ৩৩, স্মিথ ৯৮, লাবুশেন ৪৬, কেয়ারি ১৮, টার্নার ১৩, অ্যাগার ২৫, কামিন্স ০, স্টার্ক ৬, রিচার্ডসন ২৪*, জ্যাম্পা ৬; বুমরাহ ৯.১-২-৩২-১, শামি ১০-০-৭৭-৩, সাইনি ১০-০-৬২-২, জাদেজা ১০-০-৫৮-২, কুলদীপ ১০-০-৬৫-২)

ফলাফল : ভারত ৩৬ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ : লোকেশ রাহুল

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড