• সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্টকে রুহানির ভয়ঙ্কর হুঁশিয়ারি

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৫৭
যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্টকে রুহানির ভয়ঙ্কর হুঁশিয়ারি
ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি (ছবি : ভয়েস অফ আমেরিকা)

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। গুরুত্বপূর্ণ সেই নির্বাচনে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প না অন্য কেউ জয়ী হবেন, তা এখনই বলা মুশকিল। তবে এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বৈরী দেশ হিসেবে পরিচিত ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন ভিন্ন কথ। তার মতে, যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ইরানের দাবির কাছে নতিস্বীকার করতে বাধ্য হবে।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনে দেওয়া ভিডিও ভাষণে ইরানের প্রেসিডেন্ট মন্তব্যটি করেন।

হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, মার্কিন নির্বাচন ও অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে ব্যবহার করার মতো কোনো বিষয় আমরা নই। দেশটির নির্বাচনের মাধ্যমে যে সরকারই ক্ষমতায় আসুক তারা ইরানি জনগণের দাবির সামনে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হবে।

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে একতরফাভাবে বের করে নেন। তিনি তার ভাষায় নতুন একটি চুক্তি করার জন্য ইরানের প্রতি আহ্বান জানালেও তেহরান তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

আরও পড়ুন : চীনা যুদ্ধবিমানকে ধাওয়া করল তাইওয়ানের জঙ্গিবিমান

অন্যদিকে আগামী ৩ নভেম্বরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন নির্বাচিত হলে ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ২০১৫ সালে যখন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার শাসনামলে এই সমঝোতা স্বাক্ষরিত হয় তখন জো বাইডেন ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট রুহানি জাতিসংঘে দেওয়া ভাষণে মার্কিন শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে একজন কৃষ্ণাঙ্গ যুবকের নির্মম হত্যাকাণ্ডকে ইরান পরিস্থিতির সঙ্গে তুলনা করেন। তিনি বলেন, একজন প্রতিবাদী পুরুষের সঙ্গে মার্কিন পুলিশের নৃশংস আচরণের যে চিত্র বিশ্বব্যাপী প্রচারিত হয়েছে তা আমাদের কাছে ছিল চিরচেনা একটি দৃশ্য।

আরও পড়ুন : দেড় লাখ রকেট নিয়ে ইসরায়েলে আক্রমণের অপেক্ষায় হিজবুল্লাহ!

ইরানি প্রেসিডেন্ট বলেন, ওই কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির গলায় যে পা রাখা হয়েছিল সেটি আমাদের অতি পরিচিত কারণ, এটি সাম্রাজ্যবাদী শক্তির পা যা প্রতিটি স্বাধীনতাকামী জাতির টুঁটি চেপে ধরে আছে।

রুহানির ভাষায়, ইরান বিগত কয়েক দশক ধরে তার স্বাধীনচেতা মনোভাব ও সাম্রাজ্যবাদের তাবেদারি থেকে মুক্ত থাকার জন্য এ ধরনের মূল্য পরিশোধ করেছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তেহরান দাম্ভিক শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে নিজের উন্নতির ধারা অব্যাহত রেখেছে।

আরও পড়ুন : হিজবুল্লাহর অস্ত্র গুদামে বিস্ফোরণের রোমহর্ষক ভিডিও প্রকাশ

ইরানের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরানি জনগণের কষ্ট হচ্ছে ঠিকই কিন্তু স্বাধীনতাবিহীন ও তাবেদারি জীবন এর চেয়ে কষ্টকর। কাজেই ইরান কথিত সর্বোচ্চ চাপের মুখে নতিস্বীকার করবে না বলে তিনি প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি তার ভাষণের অন্য অংশে মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় ইরান বড় ভূমিকা রাখছে বলেও মন্তব্য করেন।

সূত্র : পার্সটুডে

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড