• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

তুরস্ক-গ্রিস ইস্যুতে নয়া কৌশলে এরদোগান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৫০
তুরস্ক-গ্রিস ইস্যুতে নয়া কৌশলে এরদোগান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান (ছবি : ইউরো নিউজ)

গত কয়েক সপ্তাহ যাবত পূর্ব ভূমধ্যসাগরে ইউরোপের মুসলিম রাষ্ট্র তুরস্ক ও প্রতিবেশী রাষ্ট্র গ্রিসের মধ্যে ভয়াবহ উত্তেজনা বিরাজ করছে। এক পক্ষ অন্য পক্ষের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ছে। যদিও আঙ্কারা বলছে, তারা এই সমস্যার সমাধান চায়।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান বলেছেন, আমরা গ্রিসের শীর্ষ নেতার সঙ্গে সাক্ষাত করতে প্রস্তুত। পূর্ব ভূমধ্যসাগরে তেল ও গ্যাস অনুসন্ধানকে কেন্দ্র করেই সাম্প্রতিক সময়ে বিবাদে জড়িয়ে পড়েছে ন্যাটোর সদস্যভূক্ত এই দুই দেশ। এ বিষয়ে গ্রিসের সঙ্গে আলোচনার কথা বলছে তুরস্ক।

সম্প্রতি গ্রিসের বিরোধিতা সত্ত্বেও পূর্ব ভূমধ্যসাগরের বিতর্কিত এলাকায় তেল-গ্যাস অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে আঙ্কারা। এ জন্য তারা সাগরে গবেষণা ও অনুসন্ধান জাহাজ পাঠিয়েছে। এ দিকে গ্রিস তুরস্কের জাহাজকে নজরদারি করার জন্য তার সামরিক বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে।

অন্যদিকে শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) জুমার নামাজ আদায়ের পর তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, গ্রিসের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার বৈঠক হতে পারে। তিনি আরও জানান, তার সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করা জরুরি।

আরও পড়ুন : গ্রিক শত্রুদের ছাড় না দেওয়ার হুঁশিয়ারি এরদোগানের

এরদোগানের ভাষায়, গ্রিস চাইলে আমরা সাক্ষাত করতে পারি। আমরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলতে পারি অথবা তৃতীয় কোনো দেশে আলোচনায় বসতে পারি।

যদিও শুক্রবার আরও পরের দিকে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছিলেন, আঙ্কারায় নিযুক্ত গ্রিসের রাষ্ট্রদূত মাইকেল-ক্রিসটস ডায়ামেসির ওপর সমন জারি করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আরও পড়ুন : উত্তেজনা বাড়িয়ে সিরিয়ায় অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের

গ্যাস-সমৃদ্ধ পূর্ব ভূমধ্যসাগরে অনুসন্ধান নিয়ে আশপাশের দেশগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্বের বিষয়টি নতুন কিছু নয়। তুরস্ক, গ্রিস, সাইপ্রাস, ইসরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই এ বিষয়ে বিরোধ চলছে।

যদিও কিছুদিন আগেই গ্রিক দ্বীপ কাস্তেলোরিজো উপকূলে তুরস্ক তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে ওরাক রেইস নামে একটি জাহাজ পাঠানোর পর থেকেই নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়। জাহাজটির নিরাপত্তায় সঙ্গে রয়েছে তুর্কি নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজের ছোটখাটো একটি বহর।

আরও পড়ুন : মার্কিন সেনাদের কবরে পাঠানোর হুঁশিয়ারি ইরানের

গ্রিসও তুর্কিদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণে ওই অঞ্চলে যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করে। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে কিছুটা সংঘর্ষ বেধে যায়। গ্রিস এ ঘটনাকে দুর্ঘটনা বললেও তুরস্ক এটিকে উসকানি বলে দাবি করেছে।

এ দিকে তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনার বিষয়ে শুক্রবার গ্রিক প্রধানমন্ত্রী নিকোস ডেনডিয়াস বলেন, আমার দেশ বিশ্বাস করে যে, এ বিষয়ে আলোচনা শুরু হওয়া উচিত এবং আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করা উচিত নয়। তিনি আরও বলেন, ওই এলাকায় জোর করে কারও বিজয়ী হওয়ার চেষ্টা করা অবশ্যই উচিত নয়।

আরও পড়ুন : তালিবানকে ধ্বংস করতে আফগান সেনাদের ভয়ঙ্কর যুদ্ধবিমান দিল যুক্তরাষ্ট্র

প্রধানমন্ত্রী নিকোসের মতে, তুরস্কের সঙ্গে আলোচনা করতে গ্রিস সব সময়ই প্রস্তুত।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড