• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

উটের পর সীমান্তে চোরাচালানের কাজে পাকিস্তানি ড্রোন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ জুলাই ২০২০, ১৪:৪৯
উটের পর সীমান্তে চোরাচালানের কাজে পাকিস্তানি ড্রোন
পাকিস্তানি ড্রোন (ছবি : প্রতীকী)

বেশিদিন আগের কথা নয়, পাকিস্তান ভিত্তিক অপরাধী সিন্ডিকেট এবং সন্ত্রাসবাদী দলগুলো রাজস্থানের থার মরুভূমি এবং প্রশিক্ষিত ফুট কুরিয়ারগুলোর মাধ্যমে সীমান্ত এলাকায় উটের উপর মাদক, অস্ত্র এবং অন্যান্য অবৈধ পণ্য পাচার করত। এখন একই কাজে তারা ড্রোন ব্যবহার করছে।

সীমান্ত এলাকায় পাচার কাজে ড্রোনের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় ভারতীয় সুরক্ষা সংস্থাগুলো প্রতিরোধের জন্য একটি স্মার্ট সীমান্ত ব্যবস্থাপনার অংশ হিসাবে নির্ভরযোগ্য পদ্ধতি স্থাপনের বিভিন্ন উপায় খুঁজছে।

জানা গেছে, সীমান্তর সুরক্ষার ক্ষেত্রে, ড্রোন জ্যামারগুলো খুব বেশি কার্যকর নয়। এ কারণে নজরদারি বাড়াতে ও শনাক্ত করণে তারা কার্যকর বিকল্প পথ বের করার চেষ্টা করছে।

সর্বশেষ পাকিস্তানি ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র পাচারের ঘটনা শনাক্ত হয় গত ২০ জুন। এদিন ভারতীয় সীমান্ত রক্ষা বাহিনী (বিএসএফ) জম্মুর হিরা নগর সেক্টরের রথুয়া গ্রামের কাছে একটি ড্রোন গুলি করে নামায়। ওই সময় ড্রোনটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি এম-৪ রাইফেল, ২টি ম্যাগাজিন, ৬০ রাউন্ড বুলেট এবং ৭ টি গ্রেনেড উদ্ধার করা হয়।

এ দিকে প্রথমবারের মতো ভারত-পাকিস্তান সীমান্তবর্তী হীরা নগর সেক্টরে একটি ড্রোন নামার ঘটনা লক্ষ্য করা গেছে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো এখনো এই চালানোর কোনো প্রাপক শনাক্ত করতে পারেননি। এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তারও হয়নি।

এর আগে ৩ ও ৪ জুন পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের ডেরা বাবা নানক এলাকার ধর্মকোট রন্ধাওয়া গ্রামের উপকণ্ঠে তিনটি ড্রোন সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে আরেকটি অস্ত্রের চালান নামানোর ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় সুরক্ষা সংস্থার সূত্র অনুযায়ী, ওই চালানে দুটি এপমি-৯ বন্দুক, ৬ টি পিস্তল, ৪ লাখ জাল মুদ্রা ছিল। প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, পাকিস্তানভিত্তিক সংগঠন‘ খালিস্তান জিন্দাবাদ ফোর্সে’র প্রধান রণজিৎ সিং নীতার নির্দেশে চালানটি পাঠানো হয়েছিল।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার বৈআইনী কর্মকাণ্ড (প্রতিরোধ) আইনের আওতায় রণজিৎ সিং নীতাকে সন্ত্রাসী হিসাবে চিহ্নিত করেছে। ওই আইনে নীতার সহযোগী জার্মান ভিত্তিক সংগঠনের গুরমিত সিং বগাকেও সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : ওত পেতে আছে চীন-পাকিস্তান-নেপাল, পরিস্থিতি দেখে উদ্বিগ্ন ভারত

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, পাকিস্তানি সংস্থাকে না জানিয়ে এ ধরনের অভিযান পরিচালনা করা যায় না। চোরাচালানের ঘটনায় জড়িত সবাইকে চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে।

সূত্র : দ্য হিন্দু

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড