• শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৬ দফা আন্দোলন, বিক্ষোভ

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

  পাবিপ্রবি প্রতিনিধি

০৫ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৫৯
ক্যাম্পাস
পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ছবি : সংগৃহীত)

শিক্ষার্থীদের ৬ দফা আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ক্লাস বর্জন, বিক্ষোভ এবং ভিসিকে অবরুদ্ধ করার ঘটনার জেরে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (পাবিপ্রবি) অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

সোমবার (৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় রিজেন্ট বোর্ডের সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের এই ঘোষণা দেয়া হয়। একই সঙ্গে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় ছাত্রদের এবং সকাল ১১টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, সাধারণ ছাত্রদের ব্যানারে শিক্ষার্থীরা ৬ দফা দাবিতে সোমবার (৫ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে। এ সময় তারা প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। এছাড়াও ক্যাম্পাসের মূল ফটক ও প্রশাসনিক ভবন বন্ধ করে দেয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এরপর দুপুর আড়াইটার দিকে ভিসিকে ২য় দফায় তার বাসভবনে অবরুদ্ধ করে রাখে। এ ঘটনায় পুরো ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পাবনা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওবায়দুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের বিষয়টি প্রশাসন আমাদের অবহিত করলে আমরা সেখানে এসআই মনিরের নেতৃত্বে একটি দল পাঠাই এবং তারপরই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। 

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে ৬ দফা দাবি করে আসছি এবং দাবি মেনে নেবেন বলে প্রশাসন থেকে আশ্বাসও দেয়া হয়। কিন্ত ৩/৪ মাস অতিবাহিত হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। 

শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের দাবিগুলো হলো, ইয়ারড্রপ পদ্ধতি বাতিল, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষসহ পরবর্তী সকল ব্যাচ সমূহের অর্ডিন্যান্সের আওতাভুক্ত করা, হলের ডাইনিংয়ের খাবার উন্নয়নের জন্য ভর্তুকি প্রদান, ক্লাস রুম ও চেয়ার সংকট দূর করা, পরিবহন সংকট দুর করা, ক্যাম্পাসে ওয়াইফাই এর ব্যবস্থা করা এবং শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন। 

পাবিপ্রবির প্রক্টর প্রীতম কুমার দাস বলেন, সাধারন ছাত্রদের ব্যানারে যেসব দাবি করা হয়েছে সেগুলোর অনেকগুলোই ইতোমধ্যে পূরণ করা হয়েছে এবং অন্যগুলোর বাস্তবায়ন চলমান রয়েছে। কিন্ত তা সত্বেও তারা কোনো মহলের উষ্কানিতে এটা করতে পারে বলে আমরা মনে করছি। 

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. রোস্তম আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় রিজেন্ট বোর্ডের জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

আগামী ১৬ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড