• বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কেমন ‘দুখুমিয়া’ চান জাককানইবি শিক্ষার্থীরা?

  সরকার আব্দুল্লাহ তুহিন, জাককানইবি প্রতিনিধি

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬:৫৭
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় (ছবি : সংগৃহীত)

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতি বিজড়িত নামাপাড়ার বটতলায় অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় (জাককানইবি)। ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়টি ময়মনসিংহ বিভাগে প্রতিষ্ঠিত প্রথম সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয়। গত ১৩ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ম উপাচার্য হিসেবে শেষ হয়েছে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়াদ। দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসাবে বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করছেন কোষাধ্যক্ষ মো. জালাল উদ্দিন।

উপাচার্য বাসভবন ‘দুখুমিয়া বাংলো’র কে হচ্ছেন আগামী দুখুমিয়া, তা নিয়ে জাককানইবি পরিবারে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। নিজেদের অভিভাবক হিসেবে কেমন উপাচার্য চান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা? মতামত জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছে ‘দৈনিক অধিকার’। তাদের মতামতে উঠে এসেছে নানা সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা।

লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালনবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী ফাহমিদ অর্ক বলেন, এমন উপাচার্য চাই যিনি সৎ, আদর্শবাদ এবং একজন দক্ষ প্রশাসক। এমন উপাচার্য চাই যিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা পূরণে সার্বক্ষণিক কাজ করবেন। এমন উপাচার্য চাই যাকে কেও কোনো প্রকার চাপ দিয়ে কাজ করাতে পারবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবিষ্যত কর্ণধার নিয়ে ফিল্ম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের ফারজানা সকাল বলেন, বর্তমান ক্যাম্পাসে এমন উপাচার্য দরকার যিনি নিজেদের অন্তঃকোন্দলে অধিক সময় ব্যয় না করে একাডেমিক দিকে মনোযোগ দিবেন৷ সেশনজট নিরসন, ছাত্রবান্ধব ক্যাম্পাস, স্বচ্ছ পদ্ধতিতে শিক্ষক নিয়োগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক এবং প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য এবং সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী উপাচার্য চাই৷ যার মুখের কথা শুধুমাত্র ফাঁকা বুলি হবে না।

মাস্টার্সপড়ুয়া অর্থনীতি বিভাগের ছিদ্দিকুল করিম শামীম বলেন, আমাদের ছোট্ট ক্যাম্পাসে সমস্যার শেষ নেই। আমরা এ রকম অভিভাবক চাই, যার হাত ধরে অনেক দূর এগিয়ে যাবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষক-কর্মকর্তাদের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ, প্রশাসনিক কাজে গতিশীলতা বাড়ানো, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা নিশ্চিতকরণ এবং নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে যত অভিযোগ সব দূর করে শিক্ষা ও গবেষণার জন্য আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে যেন অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়।

ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী তানজিনা জেবীন বলেন, এমন উপাচার্য চাই যিনি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা ও গবেষণার পরিবেশ নিশ্চিত করবেন। ক্যাম্পাসে সবার জন্যে নিরাপদ খাদ্য, নিরাপত্তা, আধুনিক চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য বীমার ব্যবস্থা করবেন।

ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থী আশিকুর রহমান শাকিল বলেন, জাতীয় কবির নামে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলেও এখন পর্যন্ত এ বিশ্ববিদ্যালয় সত্যিকার অর্থে একজন দুখু মিয়ার দেখা পায়নি। বিদ্রোহী চেতনায় উদ্ভাসিত হয়ে সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধ প্রতিমূর্তি একজন অভিভাবক থাকবেন এটাই প্রত্যাশা। যিনি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা, গবেষণা ও আবাসনে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিবেন। চাটুকার ও তোষামোদকারী বিবর্জিত, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবান্ধব একজন দুখু মিয়াই উপাচার্য হয়ে আসুক এটাই চাওয়া।

মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মাহিন মিয়া বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য বাস্তবমুখী চিন্তা করবে এবং শিক্ষকদের আদর্শ হিসেবে থাকবে এমন একজন উপাচার্য এখন সময়ের দাবি। কথায় নয়, কাজ বাস্তবায়নের প্রতি জোর দিয়ে অন্যায় এবং দুর্নীতির সাথে আপোষহীনভাবে এগিয়ে যাবে এমন একজন প্রগতিশীল, শিক্ষার্থীবান্ধব উপাচার্য চাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী নিলয় মাহমুদ রুবেল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য যিনি হবেন তিনি অন্তত এটা বুঝবেন যে, তিনি একজন উপাচার্য। রাষ্ট্রপতির পরে উনার কাজ করার ক্ষমতা। উন্নয়নের প্রশ্নে যেন না বলেন যে, ‘আমার তো হাত-পা বাঁধা। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি মডেল বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করবেন এমন যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তিকেই উপাচার্য হিসেবে চাই।

ওডি/এএম

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড