• বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কারও গোপন পাপ প্রচার করার ব্যাপারে ইসলাম কী বলে?

  ধর্ম ও জীবন ডেস্ক

০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১২:৪০
স্ক্যান্ডাল
ছবি : প্রতীকী

এক অভিনেত্রীর গোপন কিছু ছবি ফাঁস হয়েছে। যদিও বিবাহবহির্ভূত যৌনসম্পর্ক স্থাপন ইসলামের দৃষ্টিতে জঘন্য ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সামাজিকভাবেও নিকৃষ্ট একটি কাজ। কিন্তু  যারা এধরনের অশ্লীল বিষয়গুলো লোকসমাজে প্রচার করে বেড়াচ্ছেন, প্রচারণা চালাচ্ছেন, আসুন দেখি ইসলাম এ ব্যাপারে কী বলে। 

আবদুল্লাহ ইবনু উমর (রা.) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) মিম্বরে দাঁড়িয়ে উচ্চস্বরে বললেন, ‘হে লোকেরা, যারা কী-না ইসলামকে শুধুমাত্র মুখে গ্রহণ করেছ, কিন্তু অন্তরে ঈমান আননি এখনো, তোমরা মুসলমানদের অনিষ্ট করা থেকে বিরত থাক, বিরত থাক তাদের ঠাট্টা করা থেকে, আর বিরত থাক তাদের ভুলত্রুটি বলে বেড়ানো থেকে; কারণ যে ব্যক্তি তার ভাইয়ের দোষ অন্বেষণ করে বেড়ায় আল্লাহও তার দোষ অন্বেষণ করবেন এবং তা জনসমক্ষে প্রকাশ করে দিবেন, এমনকি যদি নিভৃতে কোন এক গৃহকোণেও সংঘটিত হয়ে থাকে পাপটি।’ [সহিহ আল জামে]

উপরের হাদিসের শেষ বাক্যটি আবার পড়ুন। জেনে রাখবেন, দোষ-ত্রুটি নিয়েই মানুষ। আমাদের অনেকেরই এমন এমন অপরাধ আছে, যা মানুষ জানলে সমাজে মুখ দেখাতে পারব না। কিন্তু আল্লাহ সেগুলো ঢেকে রেখেছেন। আমরা মানুষের গোপন গোনাহ নিয়ে তাকে অপদস্থ করি, অথচ আল্লাহ চাইলে মুহূর্তেই আমাদের নাজেহাল করে দিতে পারেন। হ্যাঁ, আখিরাতে সবই প্রকাশিত হয়ে যাবে। এজন্য দুনিয়া এবং আখিরাতে যেন নিজেদের অপরাধ আল্লাহ ঢেকে রাখেন, সেজন্য অন্যের পাপগুলোও ঢেকে রাখুন।

নবিজি (সা.) বলেন, ‘যে বান্দা অন্য বান্দার দোষ-ত্রুটি এ পার্থিব জীবনে গোপন রাখবে, আল্লাহ তায়ালা কিয়ামতের দিন তার দোষ-ত্রুটি গোপন রাখবেন।’ [সহিহ মুসলিম]

আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘যারা পছন্দ করে যে, ঈমানদারদের মধ্যে অশ্লীলতার প্রসার লাভ করুক, নিঃসন্দেহে ইহকাল ও পরকালে তাদের জন্যে রয়েছে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি। আল্লাহ জানেন, তোমরা জানো না।’ [সুরা আন-নূর : ২৪:১৯] 

ভয়ানক বিষয় হলো, কমেন্টে হাজারো মানুষ নির্লজ্জের মত বলছে, ‘ভাই লিংক হবে?’ আস্তাগফিরুল্লাহ। গোনাহ করা এক জিনিস আর তা আনন্দের সাথে বলে বেড়ানো তো আরো ভয়ংকর।

আবু হুরাইরাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি, ‘আমার সকল উম্মত মাফ পাবে, তবে পাপ-প্রকাশকারী ব্যতীত। আর এক প্রকার প্রকাশ এই যে, কোনো ব্যক্তি রাতে কোনো পাপকাজ করে, যা আল্লাহ গোপন রাখেন। কিন্তু সকাল হলে সে বলে বেড়ায়, হে অমুক! আমি আজ রাতে এই এই কাজ করেছি।’ অথচ সে এমন অবস্থায় রাত্রি অতিবাহিত করেছিল যে, আল্লাহ তার পাপ গোপন রেখেছিলেন। কিন্তু সে সকালে উঠে তার উপর আল্লাহর আবৃত পর্দা খুলে ফেলে।’ [বুখারি : ৬০৬৯, মুসলিম : ২৯৯০]

অতএব, প্রকাশ্য পাপচারীরা সাবধান হোন। আল্লাহর আবৃত পর্দাকে উন্মোচন করে নিজের সর্বনাশ করবেন না।

এর মানে আমরা কোনো পাপাচারীর পক্ষাবলম্বন করছি ব্যাপারটা এরকম নয়। কারো পাপ যদি গোপন থাকে এবং এই পাপ দ্বারা অন্য কেউ জুলুমের শিকার না হয়, তবে এটা ঢেকে রাখতে হবে, ইসলামের এই বিধানটা জানিয়ে দেওয়াই আমাদের উদ্দেশ্য। এর বিপরীতে আমরা এসব পাপাচারের ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারি। আর বাংলাদেশে বিবাহবহির্ভূত যৌনসম্পর্কের ব্যাপারে কোনো আইন নেই। ধর্ষণের মতো এ ব্যাপারেও কঠোর আইন, আরও স্পষ্ট করে বললে, কুরআনে বর্ণিত দণ্ডবিধি বাস্তবায়নের গণদাবি ওঠাতে পারি। 

প্রচলিত কুসংস্কারের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ব্যখ্যা, সমাজের কোন অমীমাংসিত বিষয়ে ধর্মতত্ত্ব, হাদিস, কোরআনের আয়াতের তাৎপর্য কিংবা অন্য যেকোন ধর্মের কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, সর্বপরি মানব জীবনের সকল দিকে ধর্মের গুরুত্ব নিয়ে লিখুন আপনিও- [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড