• শুক্রবার, ২১ জুন ২০১৯, ৭ আষাঢ় ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

শান্তিতে ধাক্কা খেয়েও ভারতের উপরে বাংলাদেশ

  অধিকার ডেস্ক

১২ জুন ২০১৯, ১৯:৪৫
বিশ্ব শান্তি সূচকে ৯ ধাক্কা খেল বাংলাদেশ
ফাইল ফটো

এ বছর বিশ্ব শান্তি সূচকে (জিপিআই) ৯ ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ। সূচকে বড় ধাক্কা খেলেও প্রতিবেশী ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে আছে ঢাকা। গত বছর এ সূচকে ৯৩তম ছিল বাংলাদেশ। এবার বেড়ে ১০১তম। ভারতের অবস্থান ১৪১তম, পাকিস্তান ১৫৩তম।

বৈশ্বিক শান্তি সূচক-২০১৯ তৈরি করেছে অস্ট্রেলিয়ার আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড পিস (আইইপি)।

বিশ্বের স্বাধীন ১৬৩টি দেশ নিয়ে এ তালিকা তৈরি করা হয়। সূচকে গুরুত্ব পায়- অর্থনৈতিক মূল্য, নাগরিকদের শান্তিপূর্ণ জীবনযাপন, শান্তিপূর্ণ সমাজ গঠনে দেশগুলোর পদক্ষেপ, ট্রেন্ড ও এসবের তথ্যের ভিত্তি।

জিপিআই এর প্রতিবেদনের বলা হয়, বিশ্ব শান্তি সূচকে বাংলাদেশের ৯ ধাপ অবনতি ঘটেছে। গত বছর বাংলাদেশে রাজনৈতিক সহিংসতায় ২২২৯৭ দশমিক ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে। এটি বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের তিনভাগ।

আইসল্যান্ড প্রথম স্থানটি ধরে রেখেছে এবারও। শান্তিপূর্ণ দেশের তালিকায় ২০০৮ সাল থেকেই দেশটি শীর্ষে। দ্বিতীয় অবস্থানে নিউজিল্যান্ড, তৃতীয় অস্ট্রিয়া, চতুর্থ পর্তুগাল ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে ডেনমার্ক। এ তালিকার তলানিতে রয়েছে আফগানিস্তান (১৬৩তম)।

জিপিআই জানিয়েছে, চলতি বছর বিশ্বজুড়েই অল্প পরিমাণ শান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। গড়ে দশমিক ৯ শতাংশ হারে শান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। ১৬৩টি দেশের মধ্যে শান্তি বেড়েছে ৮৬টিতে, কমেছে ৭৬টিতে।

তবে চমক দেখিয়েছে ভূটান। দেশটি শীর্ষ ২০-এ ঢুকেছে। গেল ১২ বছরে দেশটি ৪৩ ধাপ এগিয়েছে। গত বছর ছিল ১৯তম, এবার ১৫তম।

গত বছর সূচকের তলানিতে ছিল যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া, এবার তলানিতে আফগানিস্তান। সিরিয়ার স্থান ১৬২তম, দক্ষিণ সুদান ১৬১তম, ইয়েমেন ১৬০তম ও ইরাক ১৫৯তম অবস্থানে রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ঢাকার বিভিন্ন বস্তিতে বাস করা ৮১ শতাংশই জলবায়ু উদ্বাস্তু। জলবায়ুর পরিবর্তনের কারণে তারা বাড়িঘর ছেড়ে ঢাকায় বিভিন্ন বস্তিতে আশ্রয় নিয়েছে। ভবিষ্যতে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রায় এক কোটি ৮০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এতে ১৬ শতাংশ ভূমি হারিয়ে যাবে।

ওডি/এমআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড