• বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঢাকার বায়ু মানে উন্নতি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৯ এপ্রিল ২০২০, ১৩:১১
ঢাকা শহর
ঢাকা শহর (ছবি : সংগৃহীত)

দূষিত বায়ুতে যেসব মানুষের বসবাস, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে সেসব মানুষের মৃত্যু ঝুঁকি বেশি। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর থেকে মানুষের ঘরে অবস্থান করা ও শিল্প কল-কারখানা বন্ধ থাকাসহ নানা কারণে সারাবিশ্বেই বায়ুর মান ভালো হচ্ছে।

স্বাভাবিক সময়ে সকাল ১০টায় ঢাকাসহ বিশ্বের অনেক শহরের বায়ুর মান বিপজ্জনক (দূষণের মাত্রা ৩০০ পিএম ২.৫ এর বেশি), খুবই অস্বাস্থ্যকর (দূষণের মাত্রা ২০১ থেকে ৩০০ পিএম ২.৫) ও অস্বাস্থ্যকর (দূষণের মাত্রা ১৫১ থেকে ২০০ পিএম২.৫) ক্যাটাগরিতে থাকত। তবে বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১০টায় করোনার এই সময়ে সারাবিশ্বের কোনো শহরের বায়ুর মান বিপজ্জনক ও খুবই অস্বাস্থ্যকর ক্যাটাগরিতে নেই।

আর অস্বাস্থ্যকর ক্যাটাগরিতে রয়েছে বিশ্বের মাত্র ১১টি শহর। তার মধ্যে ঢাকার বায়ুর মান ১৬৫ পিএম ২.৫ নিয়ে চার নম্বরে রয়েছে। বায়ুমান ১৬৮ পিএম ২.৫ নিয়ে প্রথমে রয়েছে থাইল্যান্ডের চিয়াং মাই, ১৬৭ পিএম ২.৫ নিয়ে দুই নম্বরে ভারতের দিল্লী এবং ১৬৬ পিএম ২.৫ নিয়ে তিন নম্বরে রয়েছে ভিয়েতনামের হানোই। ফলে এই ১১টি শহর ছাড়া সারাবিশ্বের মানুষ এখন আর বায়ু দূষিণজনিত স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে নেই।

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত আইকিউএয়ার কোয়ালিটির ‘লাভই এয়ার কোয়ালিটি (একিউআই) সিটি র‌্যাংকিং’ থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

আরও পড়ুন : করোনায় দেশের জন্য এপ্রিল মাস 'ক্রিটিক্যাল'

আর আইকিউএয়ার কোয়ালিটির ‘বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের’ তালিকায় বাংলাদেশের ঢাকার অবস্থান ২১ তম। ঢাকায় গড়ে দূষিত বায়ুর পরিমাণ ৮৩ দশমিক ৩ পিএম ২.৫। গড়ে ১১০ দশমিক ২ পিএম ২.৫ নিয়ে প্রথমে রয়েছে ভারতের গাজিয়াবাদ, ১১০ দশমিক ১ পিএম ২.৫ নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চিনের হোটান এবং ১০৫ দশমকি ৩ পিএম ২.৫ নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাকিস্তানের গুজরানওয়ালা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড