• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সৌদি তেলক্ষেত্র হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ অস্বীকার ইরানের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:২৪
ইরান
(ছবি : সংগৃহীত)

সৌদি আরবের তেলক্ষেত্রে হামলার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের করা অভিযোগ অস্বীকার করেছে ইরান। অভিযোগ অস্বীকার করার পাশাপাশি ইরানের পক্ষ থেকে হুমকি দিয়ে বলা হয়, ওই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের সব সেনা ঘাঁটি ও বিমানবাহী রণতরী তাদের ক্ষেপণাস্ত্রের নাগালের মধ্যেই আছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের এই অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র  বিবৃতি দিয়েছেন। এছাড়াও দেশটির অভিজাত রেভল্যুশনারি গার্ডের এক জ্যেষ্ঠ কমান্ডার বলেছেন, ইরান ‘পূর্ণমাত্রার’ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত আছে।

তাসনিম নিউজ এজেন্সিকে তিনি বলেন, সবার জানা উচিত ইরানের চারপাশে যুক্তরাষ্ট্রের যতগুলো সেনা ঘাঁটি ও বিমানবাহী রণতরী রয়েছে তার সবগুলোই আমাদের ক্ষেপণাস্ত্রের নাগালের মধ্যে।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে ড্রোন হামলায় সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি ‘সৌদি আরামকো’র দুইটি তেলক্ষেত্রে আগুন ধরে যায়। হামলার পর রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে সৌদি আরামকোর এক বিবৃতিতে জানানো হয়, অগ্নিকাণ্ডে যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তাতে দেশের দৈনিক তেল উৎপাদন ৫৭ লাখ ব্যারেল হ্রাস পাবে।  

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় রাতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এক টুইট বার্তায় বলেন, 'সৌদির ইস্টার্ন প্রদেশে অবস্থিত তেল স্থাপনাগুলোতে ইয়েমেনের ড্রোন হামলার পেছনে তেহরানও প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। যদিও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব অভিযোগ এরই মধ্যে প্রত্যাখ্যান করেছে শিয়াপন্থি সশস্ত্র সংগঠন হুথি বিদ্রোহীরা।

টুইট বার্তায় মাইক পম্পেও বলেছেন, 'হাসান রুহানি (ইরানের প্রেসিডেন্ট) ও জারিফ (দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী) সৌদির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কে জড়িত থাকার ভান করছেন। কেননা রিয়াদে এখন পর্যন্ত চালানো প্রায় শতাধিক হামলার পেছনে তেহরান জড়িত। তাছাড়া উত্তেজনা হ্রাসের সকল আহ্বান সত্ত্বেও ইরান এখনো বিশ্বের জ্বালানি সরবরাহে অভূতপূর্ব আক্রমণ করে যাচ্ছে।' 

ওডি/কেএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড