• শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় বাড়িতে ঢুকে গুলি করে হত্যা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৪ অক্টোবর ২০২০, ১৬:৩১
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

হাথরাসের ঘটনা এখনও টাটকা দেশবাসীর মনে। এক দলিত মেয়ের উপর নৃশংস অত্যাচারের ঘটনা কেউই ভুলতে পারেননি। এর মধ্যেই ফের প্রশ্নের মুখে যোগীর রাজ্যে নারী সুরক্ষার বিষয়টি। এবার যৌন হেনস্তার প্রতিবাদ করায় এক দ্বাদশ ছাত্রীর বাড়িতে ঢুকে তাকে গুলি করে হত্যা করল তিন যুবক। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সন্ধ্যায় ফিরোজাবাদ জেলার প্রেম নগরে।

মৃত মেয়েটির পরিবারের লোকের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই মেয়েটিকে উত্যক্ত করত অভিযুক্ত তিন যুবক–মনীশ যাদব, শিবপালী যাদব এবং গৌরব চক। স্কুল হোক কিংবা টিউশন, বাড়ি ফেরার সময় মাঝেমধ্যেই তারা নানারকম কটূক্তি করত, টিটকিরি মারত। শেষপর্যন্ত তিন যুবকের কুকীর্তির প্রতিবাদ জানায় মেয়েটি। কিন্তু সেই প্রতিবাদের মাশুল গুনতে হল জীবন দিয়ে।

জানা গিয়েছে, ঘটনার দিন আচমকাই মেয়েটির বাড়িতে চড়াও হয় তিনজন। দরজা ভেঙে ভিতরে ঢোকে। মারধর করতে থাকে বাড়ির লোকজনকে। এরপরই একজন দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীর মাথায় গুলি করে। ঘটনাস্থলেই মারা যায় মেয়েটি। এরপর তড়িঘড়ি সেখান থেকে পালায় তিনজন। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

এই প্রসঙ্গে এসএসপি শচীন্দ কুমার প্যাটেল জানান, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে তিনটি দল গঠন করা হয়েছে। তাঁর কথায়, ‘‌‘খুনের ‌খবর পেয়েই আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। মৃতার বাবা আমাদের তিনজন অপরাধীর নাম জানান। ওই তিনজনই বাড়িটিতে ঢুকে মেয়েটিকে খুন করে। ইতিমধ্যে তিনজনের নামেই মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্তদের ধরতে তিনটি পৃথক দলও গঠন করা হয়েছে।’‌’‌ তবে এই প্রথম নয়, নারী সুরক্ষার ক্ষেত্রে বারংবার প্রশ্নের মুখে পড়েছে যোগী আদিত্যনাথের প্রশাসন। হাথরাস ঘটনার পর থেকেই যা নিয়ে আরও বেশি করে সরব হয়েছেন বিরোধীরা। তাঁদের অভিযোগ, মুখে বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও বললেও বাস্তবে মেয়েদের সুরক্ষায় উদাসীন উত্তরপ্রদেশ সরকার।

ওডি/

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড