• শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফের জনসম্মুখে কিম, যোগ দিলেন পরমাণু যুদ্ধ সংক্রান্ত বৈঠকে! 

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ মে ২০২০, ১৮:০৮
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

প্রায় ২০ দিন পর ফের জনসম্মুখে এলেন উত্তর কোরিয়ার রহস্যময় স্বৈরশাসক কিম জং উন। সম্প্রতি সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরমাণু যুদ্ধ সংক্রান্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে কিম উপস্থিত ছিলেন বলে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

জানা গেছে, দেশের সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের বৈঠকে হাজির ছিলেন প্রেসিডেন্ট কিম জং উন। আণবিক যুদ্ধের ক্ষেত্রে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বা পাল্টা হামলার কৌশল নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানিয়েছে, 'বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক যুদ্ধ ক্ষমতাকে আরো বাড়িয়ে তোলার এবং সশস্ত্র বাহিনীকে কৌশলগত উপায়ে একটি উচ্চ সতর্কতামূলক অপারেশনে শামিল করার জন্য নতুন নীতি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।'

মিলিটারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে কিমের ওই বৈঠকের বেশ কিছু ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন নথি পরীক্ষা করে মিলিটারি কর্মকর্তাদের বেশ কিছু নির্দেশ দিচ্ছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক।

উত্তর কোরিয়ার মিলিটারি কমিশনের প্রধান কিম। সহজ কথায় দেশের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত বিষয়ে তাঁর কথাই শেষ কথা। কেএনসির রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে যে, সে দিনের বৈঠকে বেশ কিছু কমান্ডারকে রদবদল করেন কিম। এত দিন সেনাপ্রধান ছিলেন পাক জোং চোন। তাঁকে সেই জায়গা থেকে সরিয়ে নিয়ে আসা হয় ভাইস মার্শালের পদে। এ ছাড়াও রি পিয়ং চোল-কে অস্ত্রশস্ত্র সংক্রান্ত অগ্রগতির দিক খতিয়ে দেখার জন্য সিনিয়ার পার্টি অফিসিয়াল ইনচার্জ করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ং শহরের মেইন স্কোয়ার থেকে সরানো হয়েছে কিমের দাদা কিম ইল সাং এবং বাবা কিম জং ইল-এর ছবি। ফলে কিমের স্বাস্থ্য নিয়ে বড়সড় কোনও ঘোষণা হতে পারে বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু ফের জনসমক্ষে এসে সমস্ত জল্পনা-কল্পনা উড়িয়ে দিয়েছেন কিম। সূত্র- সিবিএস নিউজ।

ওডি/ 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড