• শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গরিব মানুষ বলেই ওদের শুদ্ধিকরণ বিষাক্ত রাসায়নিকে

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৩১ মার্চ ২০২০, ১৫:৩৩
ভারতে শ্রমিক

রাস্তার পাশে পিঠে ব্যাগ, মালপত্র-সহ  সাধারণ জামাকাপড় পড়া এক দল গরিব কিছিমের লোক বসে রয়েছেন। মাথা থেকে পা পর্যন্ত ঢাকা বিশেষ পোশাকে একদল লোক তাদের স্প্রে করে পুরো শরীর ভিজিয়ে দিচ্ছে জীবাণুনাশক রাসায়নিকে। জীবাণুনাশকে ভিজতে ভিজতে বসে থাকা মানুষগুলির কেউ মুখ ঢাকছেন কাপড়ে, কেউ আবার নিজের ক্ষতির পরোয়া না করে পাশে বসা শিশুটির চোখ জোড়া ঢাকছেন দুই হাতে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মোকাবিলা করতে এভাবেই উত্তরপ্রদেশের বরেলীর একটি চেক পয়েন্টে অন্য রাজ্য থেকে আসা এক দল শ্রমিককে শুদ্ধকরণ করেছে যোগী আদিত্যনাথের প্রশাসন।

ওই ঘটনার ৩১ সেকেন্ডের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে। এর পরেই উত্তরপ্রদেশের বিজেপি সরকারকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছে বিরোধী দল এবং নাগরিকদের একাংশ।

বিজেপি সমর্থিত উত্তরপ্রদেশ সরকারকে কটাক্ষ করে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর টুইট, এমন অমানবিক কাজ করবেন না। শ্রমিকেরা এমনিতেই অনেক কষ্ট সহ্য করছেন। ওদের এভাবে রাসায়নিক দিয়ে স্নান করাবেন না। এতে ভাল হবে না, বরং ওদের ক্ষতিই হবে। 

বিএসপি নেত্রী মায়াবতীর মতে, এই ঘটনা নিষ্ঠুর ও অবিচারের উদাহরণ। এসপি প্রধান অখিলেশ যাদব জানতে চেয়েছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিকায় রাসায়নিক দিয়ে স্নান করানোর কথা বলা আছে নাকি?

সাধারণ নাগরিকদের একজন লিখেছেন, করোনা আক্রান্ত দেশ থেকে যখন প্রবাসী ভারতীয়দের ফেরানো হল, তখন তাদের সঙ্গে তো এমন আচরণ করা হয়নি। ভারত কি শুধু ধনীদের? আর একজন লিখেছেন- ওরা গরিবের সন্তান বলেই রাস্তায় বসিয়ে দেয়া হয় বিষাক্ত রাসায়নিক। 

তবে উত্তরপ্রদেশে প্রশাসন সূত্র বলেছে,  দিল্লি, হরিয়ানা ও নয়ডা থেকে এক দল শ্রমিককে নিয়ে আসা হয়েছিল। রাস্তার ধারে পুলিশ এবং স্বাস্থ্য দফতরের কর্মীদের উপস্থিতিতেই শিশু থেকে বৃদ্ধ সকলকে বসিয়ে জীবাণুনাশক রাসায়নিকে স্নান করানো হয়। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড