• বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

স্বাস্থ্যকর যে খাবারগুলো অতিরিক্ত ক্যালোরি দিয়ে ভর্তি!

  সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি

২০ জুলাই ২০১৯, ০৮:৪৮
ক্যালোরি
ছবি : প্রতীকী

স্বাস্থ্যসচেতন হওয়ার কারণে বর্তমান সময়ে প্রসেসড খাবার খাওয়ার বদলে স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি খাচ্ছেন সবাই। এটা বেশ ভালো একটি ব্যাপার। তবে ভালো কিছুও অতিরিক্ত পরিমাণে করা হলে সেটার নেতিবাচক দিক প্রকাশ পায়। ঠিক এমনটাই হওয়ার সম্ভাবনা আছে খাবারের ক্ষেত্রেও। 

অনেকেই ভেবে থাকেন যে, স্বাস্থ্যকর খাবার অনেক বেশি খেলেও কোনো সমস্যা হয় না। কারণ, এতে শরীরের ক্যালোরি নিয়ে চিন্তাই করতে হয় না। বাস্তবে কিন্তু ব্যাপারটি এমন নয়। স্বাস্থ্যকর খাবার এজন্য স্বাস্থ্যকর, কারণ, সেটি পরিমাণমতো গ্রহণ করলে আমাদের শরীরে কম ক্যালোরি সঞ্চিত হয়। কিন্তু আপনি যদি এই খাবারটিই অনেক বেশি পরিমাণে খেয়ে ফেলেন, তাহলে কিন্তু ক্যালোরি সেই আগের মতোই অনেক বেশি পরিমাণেই আপনার শরীরে প্রবেশ করবে। 

প্রতিদিনের খাবারে অনেক বেশি ব্যবহৃত ক্যালোরিসম্পন্ন এই স্বাস্থ্যকর খাবারগুলো সম্পর্কে জানতে চান? চলুন, দেখে নেওয়া যাক- 

নারকেল তেল- 

স্বাস্থ্যকর হওয়ায় খাবারে বর্তমানে অনেকেই প্রচুর পরিমাণে নারকেল তেল ব্যবহার করছেন। কিন্তু বাস্তবে অন্যান্য তেলের মতোই উপকারী দিকের সাথে সাথে ক্ষতিকর কিছু কাজও এটি করছে। সাধারণত প্রতি দুই টেবিল চামচে ২৪০ ক্যালোরি থাকায় নারকেল তেলও একটা পর্যায়ের পর গিয়ে আমাদের শরীরে ক্যালোরি সংক্রান্ত সমস্যা সৃষ্টি করে। 

স্মুদি-

আমরা কোক বা অন্যান্য কোমল পানীয়ের বদলে স্মুদি খাচ্ছি। আরও ভালো ফলাফলের জন্য অনেকে ফল ও সবজি দিয়ে তৈরি স্মুদিও খাচ্ছেন। কিন্তু স্মুদি খাওয়ার আগে দেখে নিন যে, এতে ব্যবহার করা সবজি ও ফলের ক্যালোরি কেমন। অন্যথায়, স্বাস্থ্যকর কোনো জিনিস দিয়ে তৈরি স্মুদিও ক্যালোরিপূর্ণ ও অস্বাস্থ্যকর হয়ে যেতে পারে।

সিরিয়াল-

সকালের নাশতায় স্বাস্থ্যকর কিছু হিসেবে অনেকে সিরিয়াল খেয়ে থাকেন। এটি সত্যিই অন্যান্য খাবারের তুলনায় আপনাকে সুস্থ থাকতে বেশি সাহায্য করবে। তবে সেজন্য আপনাকে পরিমাণের কথাটিও মাথায় রাখতে হবে। আপনি যদি অনেক বেশি সিরিয়াল একসাথে খেয়ে ফেলেন, তাহলে সেটার অতিরিক্ত ক্যালোরিও আপনার শরীরে প্রবেশ করবে। 

পিনাট বাটার-

হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য পিনাট বাটার খুব উপাদেয় ও কার্যকরী একটি খাবার। কিন্তু অন্যান্য খাবারের মতো এই পিনাট বাটারেও প্রচুর পরিমাণ ক্যালোরি রয়েছে। তাই, পরবর্তীতে পিনাট বাটার খাওয়ার আগে হিসাব করে নিন যে ঠিক কতটা বাটার একদিনে খাবেন আপনি। এতে করে স্বাস্থ্য ঠিক থাকবে, আবার ক্যালোরিও পর্যাপ্ত পরিমাণে গ্রহণ করা যাবে। 

শুকনো ফল-

অনেকে হালকা নাশতার সময় শুকনো ফল খেয়ে থাকেন। অল্প ক্ষুধার জন্য এটি বেশ ভালো ও স্বাস্থ্যকর সমাধান। কিন্তু, এই ফলগুলোকে সংরক্ষণ করার জন্য প্রচুর পরিমাণে চিনি ব্যবহার করা হয়। আর তাই শুকনো, জমিয়ে রাখা ফল খেতে গেলে পুষ্টির সাথে সাথে অনেকটা ক্যালোরিও আপনার শরীরে চলে আসে। 

এনার্জি বার–

এনার্জি বার অনেকগুলো উপাদানের সাহায্যে তৈরি হয়। তাই এই বারের মধ্যে যেকোনো একটি উপাদান থেকেও অনেক বেশি ক্যালোরি চলে আসতে পারে আপনার শরীরে।

এই পুরো লেখাটির মূল কথা হলো, কোনো খাবারই খারাপ নয়। তবে খাবার অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া উচিত নয়। আপনি যদি কোনো অতিরিক্ত ক্যালোরিযুক্ত খাবার খুব পরিমিত পরিমাণে খেয়ে থাকেন, তাহলে আপনার ওজন বেড়ে যাওয়ার অনেক বেশি সম্ভাবনা থাকে না। 

অন্যদিকে, আপনি স্বাস্থ্যকর খাবার ভেবে যে খাবারগুলো খাচ্ছেন, সেগুলো হতে পারে অনেক বেশি ক্যালোরিযুক্ত ও ক্ষতিকর। তাই, যে খাবারই খান না কেন, পরিমাণ দেখে নিয়ে খান। এতে করে আপনি সুস্থ থাকবেন সবরকম ভাবেই। 

সূত্র- ওয়েবএমডি

ওডি/এনএম

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড