• বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১৬ দফা দাবিতে ইবি কর্মকর্তাদের কর্মবিরতি

  ইবি প্রতিনিধি

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:৪৫
কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি
ইবি কর্মকর্তাদের কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) পোষ্য কোটায় ভর্তির ক্ষেত্রে ন্যূনতম আবেদনের যোগ্যতা থাকলেই ভর্তিসহ আরও ১৫ দফা দাবিতে গত ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন ইবি কর্মকর্তাদের একাংশ।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) কর্মসূচির অংশ হিসেবে বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত তৃতীয় দিনের মতো ১ ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেছেন তারা।

এ সময় বক্তারা বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি মানা না হলে আগামী শনিবার থেকে প্রতিদিন ২ ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করা হবে। প্রয়োজনে লাগাতার কর্মবিরতিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন তারা। 

কর্মকর্তাদের অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- উপ রেজিস্ট্রার/সমমান পদের কর্মকর্তাদের বেতন স্কেল ৪ নম্বর গ্রেড (জা. বে. স্কেল ২০১৫) এবং সহকারী রেজিস্ট্রার/সমমান পদের বেতন স্কেল ৬ নম্বর গ্রেড (জা. বে. স্কেল ২০১৫) অবিলম্বে বাস্তবায়ন করতে হবে, অফিস সময়সূচি পূর্বের ন্যায় (সকাল ৮টা হতে দুপুর ২টা পর্যন্ত) করতে হবে, কর্মকর্তাদের চাকরি হতে অবসরের বয়স ৬০ বছর থেকে ৬২ বছর পুনর্বহাল করতে হবে, শাখা কর্মকর্তা হতে উপ রেজিস্ট্রার পদে পদোন্নতির ক্ষেত্রে মোট চাকরিকাল ১০ বছর অর্থাৎ (৫+৫) করতে হবে। সকল দপ্তর প্রধান পদে স্থায়ী ভিত্তিতে অনতিবিলম্বে নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে। 

দাবির মধ্যে আরও রয়েছে- বিধি মোতাবেক অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার/সমমান পদে নিয়োগ দিতে হবে, কল্যাণ তহবিলের অর্থ প্রচলিত ৩টি বেতন ও ভাতাদির পরিবর্তে ১৫টি বেতন ও ভাতাদি প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে, চিকিৎসা কেন্দ্রে কর্মরত সিনিয়র টেকনিক্যাল অফিসারদের ডেপুটি চিফ টেকনিকাল অফিসার পদে পদোন্নতি ও আপগ্রেডিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে, পদোন্নতি প্রাপ্ত ৭ জন কর্মকর্তাকে প্রাপ্তির তারিখ থেকে প্রাপ্ত সুবিধা প্রদান করতে হবে, শিক্ষা জীবনের সকল পর্যায়ে ২য় বিভাগ/শ্রেণি প্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সার্বজনীন রেয়াত হতে বিশেষ সুবিধা প্রাপ্ত কর্মকর্তাদের ৬ মাসের বেতন কর্তন করা যাবে না, পদোন্নতি প্রাপ্ত ৮ জন কর্মকর্তাকে প্রাপ্তির তারিখ হতে প্রাপ্ত সুবিধা প্রদান করতে হবে, ‘সিনিয়র পেশ ইমাম’ পদটি চূড়ান্ত অর্গানোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

আরও পড়ুন : রাবির সেই ছাত্রকে আজীবন বহিষ্কারের দাবি

এছাড়া গত ৪ ফেব্রুয়ারি কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সভায় পূর্বের ১৩ দফা দাবির সঙ্গে আরও ৩ দফা দাবি সংযুক্ত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এই দাবিগুলো হচ্ছে- বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পি. এস রেজাউল করিম রেজার পিতার নামে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সাময়িক/মূল সনদপত্র তার ব্যক্তিগত নথিতে অন্তর্ভুক্ত না হলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে, বিধি বহির্ভূতভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. নওয়াব আলী খানকে অপসারণ করতে হবে, এস্টেট অফিসের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট দ্রুত প্রকাশসহ দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

ওডি/জেআই 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড