• শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভিআইপিদের পাপিয়া প্রথমে যেখানে নিয়ে যেতেন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:০২
পাপিয়া
শামীমা নুর পাপিয়া (ছবি : সংগৃহীত)

অবৈধ অস্ত্র, জাল টাকা সরবরাহ ও মাদকের পৃথক তিন মামলায় গ্রেপ্তার নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নুর পাপিয়া ওরফে পিউ ও তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে মতি সুমন। তারা এই তিন মামলায় ১৫ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। পাপিয়া তার অতিথিদের প্রথমেই রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে নিয়ে যেতেন। সেখানে লাঞ্চ ও ডিনার শেষে তাদের নিয়ে যেতেন পাপিয়ার নামে বুক করা ব্যয়বহুল প্রেসিডেনশিয়াল স্যুইটে।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সেখানে অতিথিদের নিয়ে সুন্দরী তরুণী মেয়েদের সঙ্গে কিছু সময় ধরে বৈঠক করতেন এই পাপিয়া। পরে পছন্দের তরুণীকে নিয়ে গোপন রুমে প্রবেশ করতেন ভিআইপি অতিথিরা। ওয়েস্টিন হোটেলের ২২ তলায় ৪ বেড রুমের ওই স্যুইটের প্রতি রাতের ভাড়া প্রায় ২ হাজার ডলার। পাপিয়ার পাপের সাম্রাজ্যে যাওয়া আসা করতেন প্রশাসন থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংস্থার অনেক শীর্ষ কর্মকর্তারা। এছাড়াও ধনী ব্যবসায়ীরাও পাপিয়ার ডাকে সাড়া দিয়ে ওয়েস্টিন হোটেলে যেতেন।

রিমান্ডে প্রতিদিনই অবাক করা গুরুত্বপূর্ণ নতুন সব তথ্য দিচ্ছেন পাপিয়া। ইতোমধ্যেই অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম বলেছেন তিনি।

এ দিকে, পৃথক তিন মামলায় পাপিয়া, তার স্বামী মফিজুর রহমান ও তার সহযোগীদের বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে ন্যস্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক হতে এক কোটি টাকা খরচ করেছিলেন পাপিয়া। এজন্য কতিপয় প্রভাবশালী কয়েকজন রাজনৈতিক নেতাকে বিশেষ উপহার দিয়েছিলেন তিনি।

তদন্তের বিষয়ে বিমানবন্দর থানার ওসি বিএম ফরমান আলী বলেন, বিমানবন্দর থানার এক মামলার রিমান্ডের দ্বিতীয় দিনে তদন্ত কর্মকর্তাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন পাপিয়া। তার দেওয়া তথ্যে আমরা অবাক হচ্ছি। পাপিয়ার অপকর্মের সঙ্গে ওয়েস্টিন হোটেলের কে কে জড়িত ছিল, তার অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায় কারা জড়িত ছিল, তার সঙ্গে পাওয়া জাল টাকার উৎস কী, কাদের আশ্রয় প্রশয়ে তিনি এ পর্যায়ে এসেছেন সে বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, পাপিয়া ও তার স্বামী এবং দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে বিদেশি মুদ্রা ও জাল টাকার মামলা হয়েছে। অস্ত্র ও মাদকের পৃথক মামলা হয়েছে শেরে বাংলা নগর থানায়।

আরও পড়ুন : পাপিয়ার ওড়না নিয়ে পুলিশের সঙ্গে স্বামীর ঝগড়া

উল্লেখ্য, গত ২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশত্যাগের সময় পাপিয়াসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে ফার্মগেট এলাকায় পাপিয়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে ১টি বিদেশি পিস্তল, ২টি ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড গুলি, ৫টি পাসপোর্ট, ৩টি চেক, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি এটিএম কার্ড, বিদেশি ডলার, ৫ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করে র‌্যাব।

পৃথক তিন মামলায় পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমানের ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর মধ্যে বিমানবন্দর থানার জাল টাকা উদ্ধারের মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান ৫ দিন, শেরেবাংলা নগর থানার অস্ত্র ও মাদক আইনে দায়ের করা মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীম ৫ দিন করে মোট ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

ওডি/টিএএফ

অপরাধের সূত্রপাত কিংবা ভোগান্তির কথা জানাতে সরাসরি দৈনিক অধিকারকে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড