• বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাবার সামনে কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা, যুবক আটক

  মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

১৬ আগস্ট ২০২০, ১৯:৩৫
আটক
আটক (প্রতীকী ছবি)

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় হানিফ তালুকদার (১৫) নামে এক কিশোরকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে।

রবিবার (১৬ আগস্ট) ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কিশোরের মৃত্যু হয়।

নিহত কিশোর হানিফ উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের আরমহল গ্রামের হযরত আলী তালুকদারের ছেলে।

এ ঘটনায় অনিক (২২) নামে যুবককে আটক করেছে সিরাজদিখান থানা পুলিশ। অনিক একই উপজেলার পূর্ব শিয়ালদী গ্রামের আজাহার মীরের ছেলে। তবে এখন পর্যন্ত এই হত্যা মামলার প্রধান আসামি ও কিশোর গ্যাং লিডার শামিম ওরফে সিমান্ত (১৮) পলাতক রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় শিয়ালদী মৃধাবাড়ি এলাকার একটি পাকা সড়কে নিহত হানিফকে লাঠি ও বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে তার মাথা ক্ষতবিক্ষত করে স্থানীয় কিশোর গ্যাং। এ সময় তার বাবা ও বড় ভাই ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তাদের সামনে ভুলু খাঁনের ছেলে ও কিশোর গ্যাং লিডার শামিম ওরফে সিমান্তসহ সংঘবদ্ধ ১০ থেকে ১২ জনের একটি দল ওই হামলা চালায়। হামলায় বাঁধা দিলে নিহতের বাবা ও বড় ভাই মিজান তালুকদার (২২) আহত হয়।

পরে গুরুতর আহত হানিফকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে রবিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সিমান্ত এলাকার কিশোর গ্যাং লিডার। সে নেশাসহ নানা অপকর্মে জড়িত।

এ ব্যাপারে হানিফের বড় ভাই মিজান দৈনিক অধিকারকে জানান, পূর্ব শিয়ালদি গ্রামের ভুলু খাঁনের ছেলে শামিম (সিমান্ত), তাজুলের ছেলে সাজ্জাদ, আজাহারের ছেলে অনিক ও তার বড় ভাইসহ ১০ থেকে ১২ জন আমাদের মারধর করে। আমার ভাই হানিফকে সিমান্ত আর সাজ্জাদ বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে মাথার খুলি ফাটিয়ে দেয়। পরে গুরুতর অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুই দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় হানিফ মারা যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফরিদ উদ্দিন দৈনিক অধিকারকে জানান, গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে আরমহল গ্রামে একটা সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারধরের ঘটনা ঘটে। আহত হওয়ায় হানিফকে গুরুতর অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে রবিবার সকালে খবর পাওয়া যায় সে ভোররাতে মারা গেছেন। এ ব্যাপারে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ময়না তদন্ত রিপোর্ট তৈরি করবে শাহবাগ থানা পুলিশ।

আরও পড়ুন : দুই বছরের শিশুসহ গৃহবধূর লাশ মিলল ডোবায়

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত একজনকে আটক করা হয়েছে। বাদী পক্ষের অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে বিষয়টিতে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড