• বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৭  |   ১৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ম্যাচ হেরে যা বললেন মাশরাফি

  সোহরাব মাহাদী

১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:১২
মাশরাফি বিন মর্তুজা
সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মর্তুজা (ছবি: দৈনিক অধিকার)

বিপিএলের শুরুটা ভালো হয়নি ঢাকা প্লাটুনের। তারকাসমৃদ্ধ ঢাকা টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালসের কাছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরেছে। ৫ মাস পর ক্রিকেটে ফিরেই হারের স্বাদ পেলেন ঢাকার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও।

দীর্ঘ সময় পর মাঠে ফিরলেও ম্যাচে খুব একটা ভালো খেলতে পারেননি মাশরাফি। এছাড়া পুরো দলই বাজে খেলেছে। তাই কোনো কিছুকেই অজুহাত হিসেবে দাঁড় করাতে চান না এ ক্রিকেটার। এ ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে সামনে ম্যাচগুলোতে ভালো খেলাই এখন লক্ষ্য মাশরাফি ও তার দলের।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেন, ‘ওইটা না, আবার এটাও ঠিক যে অনেক সময় মানিয়ে নিতে একটু সময় লাগে। এটা অজুহাতের জায়গায়ই পড়ে যায়। এরচেয়ে মনে হয় যে টুর্নামেন্টটা অনেক বড়, অনেক সময় আছে। আজ কিছু ভুল হয়েছে, রান আউট হয়েছে অনেকগুলো, সেগুলো ঠিক করতে হবে। কাল যেহেতু খেলা, বেশি চিন্তা করারও সুযোগ নেই। যে ভুলগুলো হয়েছে সেগুলো ঠিক করলেই আপাতত যথেষ্ট।’

এছাড়া ক্রিকেটাররা অনেকদিন মাঠের বাইরে রয়েছে বলেই সমস্যা হচ্ছে বলে মনে করেন মাশরাফি। কয়েক ম্যাচ গেলেই সব ঠিক হয়ে যাবে উল্লেখ করে মাশরাফি বলেন, ‘না, আমার কাছে মনে হয় না বিপিএলে এমন কিছু লক্ষ্য স্থাপন করার আছে। আর অবশ্যই দলের জন্য সর্বোচ্চ যেটা করা যায়, করার চেষ্টা করব। আর মূল জিনিস হচ্ছে দল। যেহেতু ফ্র্যাঞ্চাইজির দল, তারা অনেক টাকা খরচ করে এটায়, তাই সেই দিকে চিন্তা করে খেলা উচিত। আর অবশ্যই প্লেয়াররা যখন যায়, তখন চায় সেরা পারফর্ম করতে। আর আমার ক্ষেত্রে আসলে অনেক দিন পরে নেমেছি তাই একটু দ্বিধাদ্বন্দ্ব যে নেই, তা না। প্লেয়াররা অনেকদিন বাইরে থাকলে সমস্যাগুলো হয়। হয়তো ৩-৪ ম্যাচ গেলে এটা ঠিক হয়ে যাবে।’

নিজের ইনজুরি নিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘ব্যাকে একটু ছিল। অনেকদিন খেলার বাইরে তো ছোটখাটো চোট থাকার কথা না, কিন্তু আছে। শুরু করার পর টুকটাক থাকেই, আমার কাছে মনে হয় এগুলো সমস্যা না। কারণ আগেও এগুলো ওভারকাম করেছি। আশা করি ঠিক হয়ে যাবে।’

বিশ্বকাপ থেকেই নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। তার বিপিএলের শুরুটাও ভালো হয়নি। রাজশাহীর বিপক্ষে তিনি করেছেন মাত্র ৫ রান। তবে মাশরাফি মনে করেন, তামিমকে নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না তামিমকে নিয়ে বেশি চিন্তা করার আছে। গত বছরও তামিম বেশিরভাগ ম্যাচে এমন পারফরম্যান্সের ভেতর দিয়ে গিয়েছে, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচজয়ী নক কিন্তু ওরই ছিল। তামিম এটা বার বারই প্রমাণ করে এসেছে। এখন গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে দল হিসেবে খেলা যেটা আমরা আজ মিস করেছি। উইকেটটা ভালো ছিল, সাধারণত মিরপুরে এমন উইকেট পাওয়া যায় না। ১৬০ রান করার মতো একটা পর্যায়ে ছিলাম আমরা। তারপর দুই তিনটা রান আউটে আটকে গেছে রান। তারপরও আমার কাছে মনে হয় এখন আমরা চিন্তিত তো না ই, বড় আলোচনা করার সময়ও এখন না।’

এছাড়া তিন ও চার নম্বরে বাংলাদেশি তরুণদের সুযোগ দেওয়ার পক্ষে নিজের মত দেন এ অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘তরুণ যারা আছে, এটা তাদের জন্য অনেক বড় সুযোগ। বিশেষ করে বাংলাদেশি। আমাদের দলে যারা খেলছে তাদের সুযোগ কাজে লাগানোর সুযোগ আছে। এ রকম দলে চাপ থাকবে, ঢাকা প্লাটুন প্রত্যাশাই করে যে সেমিফাইনাল খেলবে। এখানে চাপ থাকবে এবং এখানে ব্যাটিং করা আমি মনে করি তরুণদের জন্য বড় সুযোগ। বিশেষ করে বিভিন্ন দেশের বোলারদের বিপক্ষেও খেলবে। অধিনায়ক হিসেবে আমি চিন্তা করছি ওরা কবে চাপ নিয়ে ভালো খেলবে এবং নিজেদের জায়গা মজবুত করবে।’

এছাড়া শুভাগত হোমের পরিবর্তে একাদশে জাকের আলীকে নেওয়ার পক্ষে মাশরাফির যুক্তি, ‘জাকের আলি গুড প্লেয়ার আমার কাছে দেখে যতটুক মনে হয়েছে। রান আউট নাহলেও তো কয়েকটা শট খেলেছে চাপের মধ্যে। যে শটগুলো খেলছিল আমার কাছে মনে হয়েছে বেশ ভালোই, শুভাগতও ভালো। দল নির্বাচনটা বড় সমস্যা বলে আমার কাছে মনে হয় না, কারণ প্রতিপক্ষ বেস করেই দল নির্বাচন করা হয়। হয়তো বা ১৬০ হলে ডিফারেন্ট গেম হতো।’

ওডি/এমএমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড