• শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফাইনালে লিভারপুলের সঙ্গী ম্যানসিটি নাকি রিয়াল?

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৪ মে ২০২২, ১৬:৩২
ম্যানচেস্টার সিটি ও রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচের দৃশ্য (ছবি: সংগৃহীত)

রাতে রিয়াল মাদ্রিদ-ম্যানচেস্টার সিটির মহারণ। প্রথম লেগে সাত গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে রিয়ালকে ৪-৩ ব্যবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে সিটি। যদিও সেই ম্যাচ হারলেও স্বস্তিতেই রয়েছে রিয়াল, কেননা ব্যবধান কেবল এক গোল।

বুধবার (৪ মে) বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে দ্বিতীয় লেগে মুখোমুখি হবে রিয়াল ও ম্যানসিটি। ম্যাচটি দিয়ে নির্ধারিত হয়ে যাবে ফাইনালে লিভারপুলের সঙ্গী হতে চলেছে কারা।

বার্নাব্যুতে অপ্রতিরোধ্য রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে লিগ শিরোপা জিততে কোনো অংশে কম এগিয়ে নেই সিটিজেনরা। বার্নাব্যু তাই ইউরোপ সেরার মঞ্চের জমজমাট এক নকআউটের অপেক্ষায়।

স্প্যানিশ লা লিগা চ্যাম্পিয়ন ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ দলের শিরোপার পথে প্রথমেই ছাপিয়ে যেতে হবে একে-অন্যকে। পেপ গার্দিওলার প্রত্যয়ী সিটির বিপক্ষে ইতিহাদে লড়বে দুর্দান্ত ধারাবাহিক কার্লো আনচেলত্তির রিয়াল।

ইউরোপিয়ান ফুটবলে এখন পর্যন্ত মোট সাতবার মুখোমুখি হয়েছে সিটি-রিয়াল। লস ব্লাঙ্কোসদের বিপক্ষে শুরুর চারটি ম্যাচে (দুটি ড্র, দুটি হার) জয় না পেলেও পরের তিনটিতে জিতেছে ম্যানসিটি। ২০১৯-২০ আসরের শেষ ষোলোতে ওঠার লড়াইয়ে রিয়ালকে বিদায় করে দুটি লেগেই জিতেছিল গার্দিওলার দল। সর্বশেষ গত ২৬ এপ্রিল ইতিহাদে রিয়ালকে ৪-৩ গোলে হারানোর স্মৃতি আছে সিটির।

পিএসজি, চেলসিকে টপকে সেরা চারে আসা রিয়াল ইউরোপ সেরার মঞ্চে সিটির বিপক্ষে শেষ তিনবারের দেখায় একটিতেও জিততে পারেনি (দুটি ড্র, একটি হার)। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের কোনো ক্লাবের বিপক্ষে অ্যাওয়ে হিসেবে শেষ ছয়টি ম্যাচের মাত্র একটিতে জয় পেয়েছে ব্লাঙ্কোসরা।

ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আনচেলত্তির প্রশংসায় ভাসাতে ভুল করেননি গার্দিওলা। ইউরোপের পাঁচ সেরা টুর্নামেন্টেই শিরোপা জেতার কীর্তি গড়া কোচের বন্দনা করেন এ স্প্যানিয়ার্ড।

তিনি বলেন, ‘আমি তার প্রশংসা করি, তিনি সারাবিশ্বে অসাধারণ দলগুলোকে কোচিং করিয়েছেন। এটা সবসময়ই অবিশ্বাস্যভাবে কঠিন, ফুটবল সত্যিই অসাধারণ। তার একটা অংশ হল তিনি ব্যতিক্রমী একজন। তার সঙ্গে কয়েকবছর আগে দেখা করেছি এবং যতবারই দেখা হয়েছে, তিনি শান্ত ছিলেন। নিজের আবেগকে নিখুঁতভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন।’

রিয়ালের বিপক্ষে জিততে মরিয়া গার্দিওলার ভাষ্য, ‘জানি না কী হতে চলেছে। আমাদের লক্ষ্য জেতার চেষ্টা করা। এমন দলের বিরুদ্ধে আমরা ভালো করেছি এবং কিছু জায়গা রয়েছে যেখানে উন্নতি করতে হবে।’

ম্যানচেস্টার সিটি প্রথম লেগে জোয়াও ক্যানসেলো এবং কাইল ওয়াকারকে খেলাতে পারেনি। একজন সাসপেনশনের কারণে এবং আরেকজন ইনজুরির কারণে বাইরে ছিলেন। দ্বিতীয় লেগে তারা ফিরতে পারেন।

‘ওয়াকার অনুশীলন করেছে। তার ব্যাপারে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। সে ফেরায় আমি খুশি। জোয়াও স্কোয়াডের বাইরে নেই। সে ভালো করছে। ম্যাচের দিন ঘুম থেকে ওঠার পর দেখব সে কেমন অনুভব করে। স্টোনস থাকছে না, সে প্রস্তুত নয়।’

ম্যাচের আগে রিয়াল কোচ আনচেলত্তি বলেন, ‘এটি বড় চ্যালেঞ্জ, কিন্তু আমরা ভালো আবহের মধ্যে আছি। লা লিগা জেতার পরে দলের আত্মবিশ্বাস দারুণ জায়গায় আছে। ম্যানসিটির মতো দলের বিপক্ষে খেলার সুযোগ খুব পাওয়া যায় না। আমরাও চেষ্টা করব, এমন একটা দলকে হারিয়ে ফাইনালে উঠতে। ঘরের মাঠে খেললেও এই ম্যাচটা খুব কঠিনই হতে চলেছে।’

‘শুরুতেই গোল তুলে নিতে পারলে ম্যাচের রাশ নিজেদের কাছে রাখা যায়। সেই ঝুঁকি আমাদের এবার নিতেই হবে। ঘরের মাঠে খেলার জন্য বাড়তি একটা সুবিধা পাব। সেটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করতে হবে।’

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড