• শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন তামিম, জানালেন তার চিকিৎসার অগ্রগতি

  ক্রীড়া ডেস্ক

০২ আগস্ট ২০২০, ১১:০৯
তামিম ইকবাল
তামিম ইকবাল

লন্ডন থেকে শনিবার সকালে দেশে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। সেখানে অনেকগুলো পরীক্ষা করানো হয়েছে তার। বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক জানালেন, সবগুলো রিপোর্ট পেতে লেগে যাবে এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিনের মতো। রিপোর্ট পাওয়ার পর বোঝা যাবে তার রোগ কতটা গুরুতর।

উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ২৫ জুলাই লন্ডনে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। যাওয়ার আগে বলেছিলেন, প্রায় তিন মাস আগে থেকে পেটের ব্যথা প্রচণ্ড ভোগাচ্ছে তাকে। মাঝেমধ্যেই হানা দিয়ে অনেক সময় টানা ১২ ঘণ্টাও থাকে সেই ব্যথা। দেশে চিকিৎসা নিয়ে কোনো রোগ ধরা না পড়ায় সিদ্ধান্ত নেন দেশের বাইরে যাওয়ার।

প্রয়োজনে লম্বা সময় থাকতে হতে পারে, এই মানসিক প্রস্তুতি নিয়েই গিয়েছিলেন তামিম। তবে ফিরতে পারলেন এক সপ্তাহ পরই। দেশে ফিরে দেশের সফলতম ব্যাটসম্যান জানালেন তার শরীরের অবস্থা ও চিকিৎসার অগ্রগতি।

“লন্ডনে অনেকগুলো টেস্ট করানো হয়েছে আমার। অনেক সময় নিয়ে টেস্টগুলো করেছেন তারা। সবগুলো টেস্টের রিপোর্ট আসতে আরও ৭ থেকে ১০ দিন লাগবে। এজন্য ডাক্তারই বললেন, এতদিন অপেক্ষা না করে চাইলে দেশে ফিরতে পারি। রিপোর্ট পাওয়ার পর তারা যদি মনে করেন যে ওষুধেই সেরে যাবে, তাহলে অনলাইনেই পরামর্শ দেবেন। আর সার্জারির মতো কিছুর প্রয়োজন হলে আমাকে আবার লন্ডন যেতে হবে।”

“চেষ্টা করেছিলাম রোগের ধরন সম্পর্কে ডাক্তারের কাছ থেকে একটু ধারণা পেতে। কিন্তু সব রিপোর্ট না দেখে তারা কিছুই বলতে চাননি। আপাতত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।”

ইদের আগে বিসিবির তত্ত্বাবধানে একক অনুশীলনে ফিরেছেন ক্রিকেটারদের অনেকে। ইদের বিরতি শেষে আবার তা শুরু হতে পারে ৮ বা ১০ অগাস্ট।

আরও পড়ুন : ‘আগামী মাসে ভারতের ক্রিকেটে আসছে বড় ধাক্কা’

তামিম জানালেন, এখনও অনুশীলন শুরু করা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেননি তিনি। রোগ শনাক্ত হওয়ার পর অবস্থা বুঝে চিকিৎসকের পরামর্শ শুনে তার পর ভাববেন মাঠে ফেরার ব্যাপারে।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড