• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে ই-ক্যাবের আয়োজন ‘শি লিডস বাংলাদেশ’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৫ মার্চ ২০২২, ২১:৫২
গল্প শোনাচ্ছেন একজন উদ্যোক্তা
মঞ্চে পথচলার গল্প শোনাচ্ছেন একজন উদ্যোক্তা। (ছবি : অধিকার)

নারী উদ্যোক্তাদের পথচলার গল্প নিয়ে ‘শি লিডস বাংলাদেশ : স্টোরি অফ ওমেন এন্টারপ্রেনারশিপ স্ট্রাগল এন্ড সাকসেস’ ট্যাগ লাইনে অনাড়ম্বর এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)।

শুক্রবার (২৫ মার্চ) বিকাল ৩টায় সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির গ্রিন রোড ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে এর আয়োজন করা হয়।

অনলাইনে যুক্ত হয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর প্রেসিডেন্ট ও অভিনেত্রী শমী কায়সার।

এসময় অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া নারী উদ্যোক্তারা তাদের প্রতিষ্ঠানের যাত্রা ও নানারকম প্রতিবন্ধকতার কথা ব্যক্ত করেন। পথচলার গল্প তুলে ধরেন যে যার মতো করে।

হুরায়রা শিশিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ হাই-টেক পার্কের এমডি ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ, প্রথম আলোর বিশেষ সংবাদদাতা রোজিনা ইসলাম, ই-ক্যাব এর জয়েন্ট সেক্রেটারি ও নারী উদ্যোক্তাদের গ্রুপ ‘উই’ এর প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা, মানবাধিকারকর্মী শিপা হাফিজা, সহকারী পুলিশ কমিশনার (কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রানস ন্যাশনাল ক্রাইম) রোকসানা ইসলাম সুজানা, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক রুদমিলা মাহাবুব, নোভার্টিজের জেনারেল ম্যানেজার নাজমুন নাহার, বিটিআরসির ডেপুটি ডিরেক্টর শারমিন সুলতানা, করিগরের ম্যানেজিং পার্টনার ও ট্যানের প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার তানিয়া মাহবুব, ইউএনডিপি বাংলাদেশ ও জয়ীতা ফাউন্ডেশনের কনসাল্টেন্ট শারাহ জিতা, ই-ক্যাব এর জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মাদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল, ই-ক্যাব কমিউনিকেশন অ্যাফেয়ার্সের ডিরেক্টর মোহাম্মদ সাইদুর রহমান, ই-ক্যাব কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্সের ডিরেক্টর আসিফ আহনান, ই-ক্যাবের ব্র্যান্ডিং এন্ড মার্কেটিং কমিটির চেয়ারম্যান মো. রুহুল কুদ্দুস ছোটন এবং যাচাই ডট কম ও সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ।

সফলতার গল্প শোনাচ্ছেন প্রথম আলোর বিশেষ সংবাদদাতা রোজিনা ইসলাম। (ছবি : অধিকার)

প্রথম আলোর বিশেষ সংবাদদাতা রোজিনা আক্তার বলেন, ‘আমাকে যখন এই প্রোগ্রামের দাওয়াত দেওয়া হলো বুঝতে পারছিলাম না কী করবো; আসলে সাংবাদিক হিসেবে বা আমার সাহসিকতার গল্প শুনতেই বিভিন্ন জায়গায় ডাকা হয় আমাকে। তবে আমারও আপনাদের মতো একটি গল্প আছে। ১৮ বছর বয়সে বিয়ে হয় আমার এবং এরপর থেকে মনে হচ্ছিলো আমি কিছু একটা করবো, পড়াশোনা বন্ধ করা যাবে না। সেই যে শুরু আজও থামিনি। আপনারা জানেন গতবছর আমাকে একটি বড় চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনিয়ম নিয়ে রিপোর্ট করায় আমাকে কারাগারে যেতে হয়েছে এবং আমি যখন সেখান থেকে বের হই তখন অনেকেই ভেবেছিলেন, যেহেতু রাষ্ট্রের সাথে এত বড় চ্যালেঞ্জ আমি হয়ত আর সাংবাদিকতা করতে পারবো না। আমি আর আগের স্থানে যেতে পারবো না। কিন্তু আমি তখন বলেছিলাম সাংবাদিকতা চালিয়ে যাবো এবং চালিয়ে যাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘আপনার যদি সৎসাহস ও প্রবল ইচ্ছা থাকে তবে কেউ থামাতে পারবে না। এটা আমার জীবনের শিক্ষা। মাঝে মাঝে আপনি ভেঙে পড়বেন, অনেক বাধা আসবে। হয়ত আপনি থামবেনও কিন্তু কখনোই নিজেকে থামিয়ে দেওয়া যাবে না। মনে রাখবেন পুরুষদের সাথেই আমাদের কাজ চালিয়ে যেতে হবে, তবে তাদের থেকে একধাপ এগিয়ে থাকতে হবে। তাদের চেয়ে বেশি সময় দিতে হবে, তাদের চেয়ে বেশি শ্রম দিতে হবে, সাহসী হতে হবে। মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড়, আমি বলি মানুষ তার স্বপ্নের চেয়েও বড়।’

ই-ক্যাবের জয়েন্ট সেক্রেটারি ও নারী উদ্যোক্তাদের গ্রুপ ‘উই’ এর প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা বলেন, ‘একটি শিশুকে যখন চোখের সামনে বড় হতে দেখি, যখন সেখানে নিজের কোনো কন্ট্রিবিউশন থাকে সেটা ভাবতেও ভালো লাগে, ই-ক্যাব তেমনই। সবাইকে বলবো ই-কমার্স সেক্টরের একমাত্র অ্যাসোসিয়েশন কিন্তু ই-ক্যাব। আরও অনেক অনলাইন অ্যাসোসিয়েশন থাকতে পারে কিন্তু অ্যাসোসিয়েশন বলতে যা বোঝায় সেটা কিন্তু ই-ক্যাবই। অনেক অ্যাসোসিয়েশন তৈরি হচ্ছে বিভ্রান্ত হবেন না। উইকে এর সঙ্গে মিলিয়ে ফেলবেন না, উই যেটা করছে সেটা কোনো অ্যাসোসিয়েশন না, একটি ট্রাস্ট, ছোট একটি সংগঠন।’

তিনি বলেন, ‘কোভিড সিচুয়েশনে আমরা অনেক উদ্যোক্তাকে নিয়ে কাজ করেছি। যেসব নারী কখনো উদ্যোক্তা হওয়ার কথা চিন্তা করেননি তাদের হাত ধরে উদ্যোক্তা বানানো হয়েছে এবং এই পর্যন্ত ধরে রাখায় আমাদের কন্ট্রিবিউশন আছে, এজন্য গর্বিত বোধ করি। একজনের হলেও তো জীবন বদলেছে। আমরা চেষ্টা করেছি আপনাদের হতাশার জায়গা থেকে বের করে আনার। মেয়েদের অনেক কাজ করতে হয় তাই আমরা হতাশও হই বেশি। বাইরে কাজ করি আবার বাসায় এসেও কাজ করতে হয়। সেখান থেকে নিজের একটি আইডেন্টিটি তৈরি করতে পারি। এই আইডেন্টিটি থামাবেন না, এটা হচ্ছে চ্যালেঞ্জ।’

মানবাধিকারকর্মী শিপা হাফিজা বলেন, ‘এখানে যারা উদ্যোক্তা আছেন তারা কিন্তু খুব ভালো ব্র্যান্ডিং করছেন। উদ্যোক্তা হতে গেলে এটা একটা মূল কাজ। উদ্যোক্তা হতে আপনাকে বক্সের বাইরে গিয়ে চিন্তা করতে হবে। আমার মনে হয়েছে সেটা আপনারা করছেন। জীবনে শুধু পড়াশোনা করবো, চাকরি করবো এই চিন্তাধারা থেকে আপনারা বের হয়ে এসেছেন। এসেছেন নিজের উদ্যোগের কারণে। নিজের চিন্তা ভাবনাকে প্রসারিত করার জন্য। আবার কেউ আছেন নানা ক্রাইসিসের কারণে এই কাজগুলো বেছে নিয়েছেন। আসলে চিন্তা করলে হয় না, শুরু করে ফেলতে হয়, শুরু করতে হবে।’

ই-ক্যাবের ব্র্যান্ডিং এন্ড মার্কেটিং কমিটির চেয়ারম্যান মো. রুহুল কুদ্দুস ছোটনের হাত থেকে সম্মাননা স্মারক গ্রহণ করছেন যাচাই ডট কম ও সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ। (ছবি : অধিকার)

এসময় যাচাই ডট কম এবং সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ বলেন, ‘ছোট পরিসরে চমৎকার আয়োজন। ই-ক্যাবের স্থায়ী কমিটিকে ধন্যবাদ জানাই অল্প সময়ে এত সুন্দর একটি আয়োজনের জন্য। এই আয়োজনে সম্পৃক্ত হতে পেরেছি বলে সত্যি আনন্দিত। যখন ই-ক্যাবের মেম্বারশিপ নিয়েছি তখন থেকেই ভেবেছি কল্যাণমুখী যেকোনো কার্যক্রমের সাথে যাচাই ডট কম থাকবে। আমাকে যদিও অল্প সময়ের নোটিশে জানানো হয়েছিল তাই আমাদের ভুল-ত্রুটি ক্ষমা করবেন। ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতে এই ধরনের আয়োজনে যাচাই ডট কমকে পাশে পাবেন।’

অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলো যাচাই ডট কম এবং সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটি। ইভেন্ট পার্টনার ব্রেক এন্ড বাইট ও বাটারফ্লাই। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলো দৈনিক অধিকার এবং ক্যাম্পাস নিউজ।

ওডি/জেআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড