• শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ান ব্যবসায়ীর সংবাদ সম্মেলন

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

১৯ জানুয়ারি ২০২২, ১১:২১
ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ান ব্যবসায়ীর সংবাদ সম্মেলন
ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করছেন মালয়েশিয়ান ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আজম বিন হাসবি (ছবি : অধিকার)

মালয়েশিয়ায় ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক ব্যবসায়ী। সময় মতো কন্টেইনার গ্রহণ অথবা ফেরত না দেওয়ায় আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ এনে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান ভাইয়া গ্রুপের (আরাফাত ট্রেডিং) বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে মালয়েশিয়ার মাহিমা ইন্টারন্যাশনাল এসডিএন, বিএইচডিয়ের স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ আজম বিন হাসবি।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দিবাগত রাত ৯টায় কুয়ালালামপুরের বুকিত বিনতাংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি নিজের লিখিত অভিযোগটি উত্থাপন করেন।

এর আগে একই অভিযোগে স্থানীয় থানায় ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের ও কুয়ালালামপুরের বাংলাদেশ হাইকমিশনে লিখিত অভিযোগ করেন ঐ মালয়েশিয়ান নাগরিক।

লিখিত অভিযোগে মোহাম্মদ হাসবি বলেছেন, বাংলাদেশি কোম্পানি ভাইয়া গ্রুপের (আরাফাত ট্রেডিং) সঙ্গে মালয়েশিয়া থেকে পণ্য আমদানি রফতানির জন্য আমার কোম্পানি মাহিমা ইন্টারন্যাশনাল এসডিএন, বিএইচডিয়ের ম্যানেজার মোহাম্মদ নাঈম হোসেনের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ হই।

চুক্তির পর মালয়েশিয়ার সকল প্রক্রিয়া মেনে ২৯ মার্চ ২০২১ তারিখে ১৫ টন গুড়া দুধ (যার বাজার মূল্য ৩৪১৫০ ইউএসডি) মালয়েশিয়ার পোর্ট ক্লাং থেকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে পাঠানো হয়। যার এলসি নং (০৯৯৮২০০১১৯৮৪) ।

আরও পড়ুন : ‘প্রতিবেশীদের শাসাতে চায় না চীন’

গুড়া দুধে'র কন্টেইনার চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছালে শুরুতেই তা দ্রুত খালাস করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন ভাইয়া গ্রুপ (আরাফাত ট্রেডিং) মালয়েশিয়ার সমন্বয়ক মোহাম্মদ সামির খান। যদিও পরবর্তীকালে সমন্বয়ক সামির ও ভাইয়া গ্রুপ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তারা বিষয়টি সুরাহা না করে ঝুলিয়ে রাখেন।

গেল ৮ মাসেও মালয়েশিয়া থেকে পাঠানো এ পণ্য গ্রহণ ও ফেরত না দেওয়ায় আইনি পদক্ষেপ, কুয়ালালামপুরের বাংলাদেশ হাইকমিশনে লিখিত অভিযোগ ও সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য হন বলে জানান মোহাম্মদ আজম বিন হাসবি নামে ঐ মালয়েশিয়ান নাগরিক।

সংবাদ সম্মেলনে মাহিমা ইন্টারন্যাশনাল এসডিএন বিএসডিয়ের অংশীদার রাসেল রানা অভিযোগ করে বলেন, আমরা বিষয়টি সমাধানের সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। কিন্তু ভাইয়া গ্রুপ (আরাফাত ট্রেডিং) কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে আমরা কোনো সাড়া না পাওয়ায় বাধ্য হয়েছি আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার। বিষয়টি নিয়ে গ্রুপের চেয়ারম্যান মারুফ সাত্তার আলির সঙ্গেও কথা বলেছি। এ ধরনের ঘটনায় দুদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে।

আরও পড়ুন : চীনে রেকর্ড মাত্রায় জন্মহার হ্রাস

উল্লেখ্য, বিষয়টি সু-নজরে এনে দ্রুত সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন রাসেল রানা। ভবিষ্যতে যাতে কেউই এ ধরনের প্রতারণার শিকার না হয় সে বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের নজরদারি বাড়ানো উচিৎ বলেও মনে করেন তিনি।

ওডি/কেএইচআর

প্রবাস জীবন, আকাঙ্খা, প্রত্যাশা-প্রাপ্তির সমীকরণ সবই লিখুন দৈনিক অধিকারকে [email protected] আপনার প্রবাস জীবনের প্রতিটি ক্ষুদ্র অনুভূতিও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড