• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

দেশের জন্য সামনে বড় বিপদ অপেক্ষা করছে : মান্না

  অধিকার ডেস্ক

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৫১
মাহমুদুর রহমান মান্না
নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না (ফাইল ছবি)

বাংলাদেশের জন্য সামনে বড় বিপদ অপেক্ষা করছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা, ডাকসুর সাবেক ভিপি ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেছেন, এনআরসির (ভারতের নাগরিকপঞ্জির) পরে সেখান থেকে বাদ পড়াদের ব্যাপারে বলা হয়েছে, তাদের ভারতে থাকতে দেওয়া হবে না। বাংলাদেশের জন্য সামনে বড় বিপদ অপেক্ষা করছে। এ সময় রোহিঙ্গা সমস্যার সুরাহা না হতেই ভারতের আসাম রাজ্যের নাগরিকপঞ্জিতে ১৯ লাখ মানুষের স্থান না পাওয়া বাংলাদেশের জন্য নতুন সংকট হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে নিজের দলের নতুন ওয়েবসাইট প্রদর্শন এবং দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে এক আলোচনা তিনি এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গা সঙ্কট প্রসঙ্গে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান সরকারই আটকে দিয়েছে। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি করে মাধ্যমে বিষয়টিকে সমাধানের ‘অযোগ্য’ করে ফেলেছে। সরকার অনেক দেশকে বন্ধু দাবি করলেও কোনো দেশ বাংলাদেশের পক্ষে দাঁড়ায়নি বরং তারা মিয়ানমারের পক্ষে দাঁড়িয়েছে।

সরকার নিজের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য এখন রোহিঙ্গাদের ওপর নানারকম নিপীড়ন চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, কিন্তু তারা এনআইডি পেয়ে যাচ্ছে। তাদের মোবাইল সিম বন্ধ করবে কীভাবে?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের প্রাক্কালে ঢাবি কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভূতভাবে ছাত্রলীগের ৩৪ জন ছাত্র-ছাত্রীকে গোপনে ছাত্রত্ব দেওয়ার ঘটনার বিষয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ উল্লেখ করে ডাকসুর সাবেক ভিপি মান্না বলেন, বিনা পরীক্ষায় এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। অনেকে নাকি ডাকসুর নেতাও হয়েছে। এদের ভর্তি বাতিল করে দেন। কিন্তু ভিসির কী এই ক্ষমতা আছে?

এই সরকার কোনো একটা কাজও ঠিকভাবে করতে পারছে না- এমন অভিযোগ তুলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা মান্না বলেন, রোহিঙ্গাদেরও এরা বের করতে পারবে না। বিরোধী দলকে নির্যাতন, অত্যাচার, গ্রেফতার করা ছাড়া কিছুই করতে পারছে না, এমনকি মশাও মারতে পারে না এ সরকার।

নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের বালিশ কাণ্ড এবং ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে পর্দা নিয়ে দুর্নীতির প্রসঙ্গ তুলে মান্না বলেন, বাংলাদেশে এখন বালিশের দাম বেশি, না পর্দার দাম বেশি? লাখ টাকা দিয়ে এখন পর্দা বানায়, এ কথা আমরা কখনো শুনিনি। রূপপুর প্রকাশিত হয়েছে, তখন ভেতরে ভেতরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ তো ছিল। কিন্তু কোনো ব্যবস্থা তো নেওয়া হয়নি।

নাগরিক ঐক্যের এই আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন- দলের প্রধান উপদেষ্টা এসএম আকরাম, সমন্বয়ক শহিদুল্লাহ কায়সার, কেন্দ্রীয় নেতা মমিনুল ইসলাম, সোহরাব হোসেন, মঞ্জুর কাদের প্রমুখ।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড