• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কম ঘুমে বাড়াচ্ছেন নিজের বিপদ!

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

০৬ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:৩৪
ঘুম
ছবি : প্রতীকী

যত দিন যাচ্ছে তত ব্যস্ত হয়ে পড়ছে মানুষ। কর্মব্যস্ত জীবনে তাই কমে আসছে ঘুমের সময়। কিন্তু এই ঘুম কমার সাথে সাথেই ক্রমশ বাড়ছে শারীরিক সমস্যা। এমনটাই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা- 

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নির্দিষ্ট সময়ের বেশি বা কম ঘুমিয়ে থাকেন তারা নানা রোগে আক্রান্ত হয় ও কম বাঁচে। এমনকি কম ঘুমানোর কারণে মোটা হয়েও যেতে পারেন যে কেউ। প্রতিদিন অন্তত ৬ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত যে কারোর। 

গবেষণা বলছে, বয়ঃসন্ধিকালের আগ পর্যন্ত প্রতি রাতে ১১ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। সদ্যোজাত শিশুর ক্ষেত্রে প্রতিদিন অন্তত ১৮ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। ১৩ থেকে ১৯ বছর অব্দি একজন মানুষের ঘুমানো উচিত ১০ ঘণ্টা। 

ডাবলিনের ট্রিনিটি কলেজের মস্তিষ্ক বিষয়ক গবেষক শেন ও’মারা বলেন, কেবল ঘুমের কারণেই স্বাস্থ্য খারাপ হয় কিনা তা বলা খুব কঠিন। তবে একটির সঙ্গে অন্যটির অবশ্যই সম্পর্ক রয়েছে। অনেকে রয়েছে যারা খুবই কম সময় ঘুমান। রাতে এক বা দুই ঘণ্টার বেশি ঘুম হয় না তাদের। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, এ কারণে স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে থাকে। 

ঘুম কম হওয়ার কারণে শারীরিকভাবে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। পৃথিবীজুড়ে ১৫৩টি গবেষণা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, কম ঘুমের কারণে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, মোটা হয়ে যাওয়া ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে। প্রায় ৫০ লাখ মানুষের ওপর এসব গবেষণা চালানো হয়। 

গবেষণায় দেখা যায়, একটানা কয়েক রাত ঘুম কম হলে সেটি ডায়াবেটিসের দিকে নিয়ে যেতে পারে। ঘুম কম হলে টিকার কার্যকারিতা ও শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ঘুম কম হলে ক্ষুধার তীব্রতা বেড়ে যায়। এতে খাবারের চাহিদা তৈরি হয় বেশি। যার ফলে মোটা হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। 

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড