• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বৃষ্টিতে ভেজার এত সুফল!

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৫
বৃষ্টি
ছবি : প্রতীকী

বৃষ্টি দেখলেই আনন্দে আত্মহারা হয়ে যায় নীরা। বৃষ্টিতে ভেজা তার প্রিয় কাজ। সব মন খারাপ দূর হয়ে যায় বৃষ্টিতে ভিজলে। কিন্তু বাসায় থাকলে তা আর হয় না। মায়ের কড়া মানা, কিছুতেই ভেজা যাবে না বৃষ্টিতে। কারণ বৃষ্টিতে ভিজলেই জ্বর আসবে, ঠান্ডা লাগবে। 

অনেকেই মনে করেন বৃষ্টিতে ভিজলে শরীরে হাজারো রোগের আক্রমণ ঘটতে পারে। বিজ্ঞান কিন্তু বলে ভিন্ন কথা। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, বৃষ্টিতে ভিজলে শরীরের কোনো ক্ষতি তো হয়ই না বরং মন আর মস্তিস্ক একেবারে চাঙ্গা হয়ে ওঠে। 

কেন ভিজবেন বৃষ্টিতে? কী হয় বৃষ্টিতে ভিজলে? চলুন সে বিষয় নিয়েই আলোচনা করা যাক- 

স্ট্রেস দূর হয়- 

ঝুম বৃষ্টিতে পাঁচ মিনিট ভিজলে স্ট্রেস লেভেল একদম কমে যায়। এটি কিন্তু বেশ কয়েকটি গবেষণায় প্রমাণিত। সে সঙ্গে দূর হয়ে যায় শরীরের ক্লান্তি। 

টক্সিক উপাদান দূর হয়- 

দেহের জন্য টক্সিন কতটা ক্ষতিকর তা আমরা সবাই জানি। বেশ কিছু গবেষক, বৃষ্টির পানিকে অ্যালকেলাইন জাতীয় জৈব পদার্থ বলেন। অর্থাৎ এই পানি পান করলে দেহে জমা টক্সিক উপাদান দূর হয়ে যায়। সেসঙ্গে উন্নতি ঘটে হজমে। শুধু কী তাই! রক্তের পিএইচ লেভেলকে স্বাভাবিক মাত্রা নিয়ে আসে এটি। যার ফলে শরীরের অ্যাসিডিটির মাত্রা কমে যায়।

শরীরের জন্য ভালো- 

বৃষ্টির পানিতে কোনো ভেজাল থাকে না। তাই এই পানি শরীরের স্পর্শে এলে কোনো ক্ষতিও হয় না। বৃষ্টির পানি জমিয়ে অনেকে রান্না বা গোসলের কাজেও ব্যবহার করে থাকেন। 

মানসিক অবসাদ কমায়- 

বৃষ্টির পানি মাটিতে পড়লে এক ধরনের মিষ্টি গন্ধ বের হয়। যাকে আমরা মাটির সোঁদা গন্ধ বলি। গবেষকরা এই গন্ধকে ‘পেট্রিকোর’ নামে ডেকে থাকেন। কেননা বৃষ্টির পানি মাটিতে উপস্থিত এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া বিশেষ এক ধরনের রাসায়নিক দ্রব্য নিঃসরণ করে। যা থেকে এ গন্ধের উৎপত্তি। 

উপকার হয় দেহের-

একাধিক গবেষণা মতে, বৃষ্টির সময় বাতাস খুব বিশুদ্ধ হয়ে থাকে। তাই এ সময় শরীরে যে বায়ু প্রবেশ করে তা দেহের উপকার করে। কেবল তাই নয়, বৃষ্টির সময় পরিবেশে উপস্থিত টক্সিক উপাদানের ক্ষতি করার ক্ষমতাও খুব কমে যায়। তবে ১০/১২ মিনিটের বেশি বৃষ্টিতে ভেজা ক্ষতিকর। এতে ঠান্ডা লাগার আশঙ্কা থাকে। 

পেটের রোগ উপশম করে- 

রোজ সকালে খালি পেটে ৩ চামচ বৃষ্টির পানি সেবনে মুক্তি পাওয়া যায় অ্যাসিডিটি ও গ্যাসের সমস্যা থেকে। সেসঙ্গে হজম শক্তিও বৃদ্ধি পায় এতে। 

সর্বাধিক বিশুদ্ধ পানীয়- 

সম্প্রতি এক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে যেখানে বলা হয় বৃষ্টির পানি পরিষ্কার পাত্রে সংগ্রহ করে খেলে শরীরের উপকার হয়। সেই সঙ্গে একাধিক রোগের প্রকোপও হ্রাস পায়। তবে এক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যেখানে বৃষ্টির পানি সংগ্রহ করা হবে তা যেন জীবাণুমুক্ত হয়। নচেৎ, শরীর ভালো হওয়ার পরিবর্তে খারাপ হবে বেশি। 

চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে- 

অনেকেই ভাবেন বৃষ্টিতে ভেজার পর চুলে শ্যাম্পু না করলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হয়। এ ধারণা কিন্তু ভুল। বিশেষজ্ঞদের মতে বৃষ্টির পানি বিশুদ্ধ হয়। ফলে এই পানি দিয়ে চুল ধুলে মাথার ত্বকে উপস্থিত একাধিক ব্যাকটেরিয়া ও ময়লা ধুয়ে যায়। তাই বৃষ্টির পানি মাথার ত্বকে লাগলে চুলের সৌন্দর্য বাড়ে, খুশকি দূর হয়। 

ত্বকের জন্যও বেশ উপকারী এই বৃষ্টির পানি। এই পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করলে ত্বক উজ্জ্বল হয়, নানা সমস্যা দূর হয়। বৃষ্টিতে ভেজার যেহেতু এত উপকারিতা আজ থেকে ঝুম বৃষ্টিতে কয়েক মিনিট ভিজতেই পারেন আপনি। 

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড