• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবার পাকিস্তানে ভারতের ভয়াবহ হামলা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ অক্টোবর ২০১৯, ১৪:২৫
পাকিস্তানে ভারতের হামলা
পাকিস্তানে হামলা চালাচ্ছে ভারতীয় জওয়ানরা। (ছবিসূত্র : লাইভ ফাস্ট)

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রণাধীন আজাদ কাশ্মীরের নিলাম উপত্যকায় জঙ্গিদের অন্তত চারটি আস্তানা ও লাঞ্চপ্যাড গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভারত। দেশটির সেনাবাহিনী জানায়, রবিবার (২০ অক্টোবর) সকালে পাক অধিকৃত উপত্যকাটির তাংঘার সেক্টরের বিপরীত পাশে ভারতীয় জওয়ানরা হামলাটি চালায়। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ব্যাপক হতাহত হয়েছে বলে দাবি নয়াদিল্লির।

সেনা সূত্রের বরাতে ভারতীয় বার্তা সংস্থা ‘এএনআই’ বলছে, পাক অধিকৃত উপত্যকাটির জঙ্গিঘাঁটি ও নিরাপত্তা চৌকি লক্ষ্য করে হামলাগুলো চালানো হয়। এতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর চার থেকে পাঁচ সদস্য ও পাকপন্থি জঙ্গি সংগঠন জঈশ-ঈ-মোহাম্মদ এবং লস্কর-ঈ-তৈয়বার বহু সদস্য হতাহত হয়।

এর আগে একই দিন ভোরে পাকিস্তানি সেনারা ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের কুপওয়ারার তাংঘার সেক্টরে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের মাধ্যমে আচমকা গুলি বর্ষণ করে। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২ জওয়ানসহ এক বেসামরিকের প্রাণহানি হয়। তাছাড়া সেখানকার দুটি বাড়ি অনেকটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মূলত এর জবাবে পাল্টা হামলা স্বরূপ এমন পদক্ষেপ নেয় ভারত।

ভারতীয় সেনাদের দাবি, এবারের হামলায় পাক সেনাবাহিনীর ৪ থেকে ৫ সদস্য ও জঈশ-ঈ-মোহাম্মদ এবং লস্কর-ঈ-তৈয়বার বেশ কয়েকজন জঙ্গি নিহত হয়েছে। পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের অন্তত চারটি লাঞ্চপ্যাডও পুরোপুরি গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

সীমান্তে অবস্থানরত সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন, ভারতীয় ভূখণ্ডে জঙ্গিদের অবৈধ অনুপ্রবেশে গোপনে সহায়তা করেছে পাক সেনাবাহিনী। যার অংশ হিসেবে রবিবার ভোরে তাংঘর সেক্টরে পাক সেনাবাহিনীর চলমান অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ ও অনুপ্রবেশ চালায়। মূলত শত্রুদের এসবের জবাব দিতে ভারতের পাল্টা হামলায় পাকিস্তানের ব্যাপক প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি হয়।’

এ দিকে বিভিন্ন সূত্রের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, আজাদ কাশ্মীর থেকে ভারতীয় ভূখণ্ডে জঙ্গিরা অনুপ্রবেশের জন্য এক সক্রিয় চেষ্টা চালাচ্ছে। যদিও এবার তাদের শক্ত হাতে প্রতিহত করতে পরে ভারতীয় সেনা সদস্যরা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তাংঘর সেক্টরে আর্টিলারি গোলাবারুদ নিক্ষেপ শুরু করে। যা আজাদ থেমে এখনো অব্যাহত আছে।

অপর দিকে গত সপ্তাহেও পাক সেনাবাহিনী বেশ কয়েকবার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ তুলেছে ভারত। সে সময় দুদেশের নিয়ন্ত্রণ রেখার বারামুল্লা এবং রাজৌরি সেক্টরে পাক সেনাবাহিনীর গুলিতে দুই ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়।

অভিযোগ রয়েছে চলতি বছরের কেবল জুলাই মাসেই অন্তত ২৯৬ বার, আগস্টে ৩০৭ এবং সেপ্টেম্বরে ২৯২ বার পাকিস্তানি সেনারা তাদের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে।

এর আগে গত ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করেছিল ক্ষমতাসীন মোদী সরকার। যার প্রেক্ষিতে পরবর্তীকালে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে বিতর্কিত লাদাখ ও জম্মু-কাশ্মীর সৃষ্টির প্রস্তাবেও সমর্থন জানানো হয়।

আরও পড়ুন :- পাকিস্তানের গুলিতে কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৩

এসবের মধ্যেই চলমান কাশ্মীর ইস্যুতে পাক-ভারত মধ্যকার সম্পর্কে নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এরইমধ্যে একে একে ভারত সরকারের সঙ্গে বাণিজ্য, যোগাযোগসহ সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দিয়েছে প্রতিবেশী পাকিস্তান। যদিও এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে ভারত পাশে পেয়েছে রাশিয়াকে এবং পাক সরকারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ দেশ ইরান ও এশিয়ার পরাশক্তি চীন।

ওডি/কেএইচআর

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড