• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

২০ বছর পর কারামুক্ত জাপানিজ রেড আর্মির প্রতিষ্ঠাতা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৮ মে ২০২২, ১৫:০২
২০ বছর পর কারামুক্ত জাপানিজ রেড আর্মির প্রতিষ্ঠাতা
কারামুক্ত হওয়ার পর জাপানিজ রেড আর্মির সহপ্রতিষ্ঠাতা ফুসাকো শিগেনোবুকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানানো হয় (ছবি : এএফপি)

নেদার‌ল্যান্ডসে ফ্রান্সের দূতাবাসকর্মীদের জিম্মি করে রাখার ঘটনায় ২০ বছর পর কারামুক্ত হয়েছেন সশস্ত্র সংগঠন জাপানিজ রেড আর্মির সহপ্রতিষ্ঠাতা ফুসাকো শিগেনোবু।

টোকিওর পশ্চিমাঞ্চলীয় আকিশিমার কারাগার থেকে স্থানীয় সময় শনিবার মুক্তি পান তিনি।

কারাফটকে তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান মেয়ে মেই শিগেনোবু ও আইনজীবী।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, অবরোধের ঘটনার পর দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন বর্তমানে ৭৬ বছর বয়সী ফুসাকো। ২০০০ সালে জাপানের ওসাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

উচ্চপর্যায়ের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বৈশ্বিক সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব চেয়েছিল তৎকালীন ত্রাস সৃষ্টিকারী সংগঠন জাপানিজ রেড আর্মি। তারা বেশ কিছু জিম্মি ও অপহরণের ঘটনা ঘটায়। পাশাপাশি ইসরায়েলের বিমানবন্দরে প্রাণঘাতী হামলাও চালায় সংগঠনটি।

ফিলিস্তিনিদের স্বাধিকার আন্দোলনে সমর্থন ছিল ফুসাকোর। তিন দশকের বেশি সময় মধ্যপ্রাচ্যে ছিলেন তিনি।

ফুসাকোর সংগঠনের তিন সদস্য ১৯৭৪ সালে নেদারল্যান্ডসের হেগে ফ্রান্সের দূতাবাসে হামলা চালায়। ওই সময় তারা ফ্রান্সের দূতসহ আরও কয়েকজন দূতাবাসকর্মীকে ১০০ ঘণ্টা জিম্মি রাখেন।

ফ্রান্স রেড আর্মির এক সদস্যকে মুক্তি দিলে এই জিম্মিদশার অবসান হয় এবং সংগঠনটির সদস্যরা বিমানে করে সিরিয়ায় চলে যায়।

ওই হামলায় ফুসাকো সরাসরি অংশ নেননি, তবে জাপানের একটি আদালত ২০০৬ সালে হামলায় তার সম্পৃক্ততা খুঁজে পায়।

হামলার সমন্বয়ে ফুসাকো সহায়তা করেছেন জানিয়ে আদালত তাকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয়। যদিও বিচার শুরুর পাঁচ বছর আগেই জাপানিজ রেড আর্মি বিলুপ্ত করে দিয়ে ফুসাকো জানান, আইনি সীমায় থেকেই নতুন লড়াই শুরু করবেন তিনি।

বিলুপ্ত হওয়ার আগে রেড আর্মি সর্বশেষ ১৯৮৮ সালে ইতালিতে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক ক্লাবে গাড়ি বোমা হামলা চালায়।

কারামুক্ত হওয়ার পর লক্ষ্য অর্জনে ‘নিরাপরাধ লোকজনের ক্ষতির জন্য’ দু:খ প্রকাশ করেন ফুসাকো।

তাকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘অর্ধশতাব্দী আগের ঘটনা…আমরা লড়াইকে অগ্রাধিকার দিয়ে জিম্মি রাখার মতো কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে নিরীহ লোকজনের ক্ষতি করেছি, যারা আমাদের কাছে অপরিচিত ছিল।’

আরও পড়ুন : লাদাখ নদীতে সেনাবাহিনীর গাড়ি পড়ে নিহত ৭

এর আগে ১৯৭২ সালে ইসরায়েলের তেল আবিবের লোদ বিমানবন্দরে হামলায় ২৬ জন নিহতের ঘটনায় দু:খ প্রকাশ করেছিলেন রেড আর্মির সহপ্রতিষ্ঠাতা।

ওডি/এফই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড