• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

বখাটেদের হাতে কুবি শিক্ষার্থী লাঞ্ছিত, মোবাইল ছিনতাই

  কুবি প্রতিনিধি

২৪ আগস্ট ২০১৯, ২২:২০
কুবি
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (ছবি : সংগৃহীত)

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) বহিরাগত বখাটেদের হাতে এক শিক্ষার্থী লাঞ্ছিত হয়েছে। অপর এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) রাত ৮ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে সানসেট ভ্যালিতে এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের দাবি, সানসেট ভ্যালিতে যাওয়ার সময় নিকটস্থ বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের সামনে দুজন নিরাপত্তা কর্মী থাকলেও ছিনতাইয়ের সময় চিৎকার শুনেও কেউ এগিয়ে আসেনি। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

ঘটনার শিকার অর্থনীতি বিভাগের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী রাশেদুল আলম সিফাত। তিনি জানান, ‘আমি ও আমার বান্ধবী রাত ৮টার দিকে সানসেট ভ্যালিতে ঘুরতে যাই। সেখানে বসার কিছুক্ষণ পরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছন দিক দুইজন বহিরাগত সন্ত্রাসী এসে আমাদের ধমকাতে শুরু করে। একপর্যায়ে তারা দুজন ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে আমাদের যা আছে দিতে বলে এবং আমার বান্ধবীর ব্যাগ নিয়ে টানাটানি শুরু করলে আমি বাধা দিই। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের একজন আমার বান্ধবীকে থাপ্পড় মারে এবং আমার হাতে থাকা ‘অপ্পো-এ৭১’ ফোনটি কেড়ে নিয়ে চলে যায়। আমি দৌড়ে তাদের গতিরোধ করতে চেষ্টা করেও পেরে উঠিনি।’ 

সরেজমিনে দেখা যায়, ঘটনাস্থল সানসেট ভ্যালিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের পশ্চিম দিকে নিরাপত্তা প্রাচীরের কোনো অস্তিত্ব নেই। এসব স্থান দিয়ে স্থানীয় লোকজন, তাদের গরু-ছাগল ও বহিরাগতরা অবাধে আসা যাওয়া করছে। তাদের পাশাপাশি স্থানীয় চোর-ছিনতাইকারীরা ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে প্রবেশ করছে। যার ফলে এ ধরনের ঘটনা ক্যাম্পাসের নিত্য দিনের সঙ্গীর মতই প্রকট হয়ে উঠেছে। এ সকল ব্যাপারে প্রশাসনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে শিক্ষার্থীরা চিন্তিত।

ঘটনার বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ জানান, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এমন ঘটনা প্রশাসনের নিরাপত্তা হীনতার চরম ব্যর্থতার পরিচয়। প্রশাসনের উচিত এ বিষয়ে সতর্ক হওয়া। না হয় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।’ 

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন জানান, ‘ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা আমাকে এখনো কিছু জানায়নি। ভিন্ন সূত্রে ঘটনাটি জানার পর আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে আলোচনা করেছি। পুলিশ প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে শীঘ্রই ক্যাম্পাসে নিরাপত্তা টহল বৃদ্ধি করা হবে।’

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড