• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চুরির দায়ে পিটুনিতে বুটেক্সের কর্মচারী নিহত

  বুটেক্স প্রতিনিধি

৩১ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪২
বুটেক্স
শহীদ আজিজ হল (ছবি : দৈনিক অধিকার)

আবাসিক হলের রুম থেকে মোবাইল চুরির দায়ে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুটেক্স) শহীদ আজিজ হলের তিন কর্মচারীকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় আব্দুল মান্নান (২৫) নামের ডাইনিংয়ের এক কর্মচারী নিহত হয়েছেন। অন্য দুইজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে আ. মান্নানকে তিন তলা থেকে নিচতলায় আনা হয়। এ সময় আহত আ. মান্নানকে বিশ্রামে রাখা হয়। কী হয়েছে জানতে চাইলে কয়েকজন জানান, ৩য় তলার একটি কক্ষ থেকে মোবাইল চুরির ঘটনায় ধরা পড়ায় তাকে মারধর করা হয়। এ সময় গত কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন চুরির ঘটনায় আর কে জড়িত জানতে চাইলে আরেক সহকর্মী মাসুদ ও পরিষ্কারকর্মী আকবরের জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করে সে। পরবর্তীতে তাদেরও ডেকে এনে মারধর করা হয়। এতে আহত হন তারা দুইজন।

এ দিকে রাত ৩টায় আহত আ. মান্নানের খবর নিতে গেলে তার হৃদস্পদন পাওয়া যাচ্ছিল না। তাৎক্ষণিক ছাত্ররা তাকে তেজগাঁয়ের শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় বুধবার (৩১ জুলাই) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা বিচারের দাবিতে মিছিল নিয়ে বের হয়। তারা এ হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে সুবিচারের দাবি জানায়।

এ দিকে, বেলা ১১টায় তদন্তে আসে পুলিশ। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর উম্মুল খায়ের ফাতেমা, সহকারী প্রক্টর শাকিরুল ইসলাম পিয়াস, হল প্রভোস্ট সহকারী অধ্যাপক শরিফ আহমেদ এবং বুটেক্স ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত থাকেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, হলের ৩য় তলায় অবস্থান করা স্নাতক পাস করা আতিকুল ইসলাম এবং ফুয়াদের কক্ষে মারধরের ঘটনা ঘটে। এ সময় আর কেউ মারধর করেছে কি না এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দিতে পারেনি পুলিশ।

হল প্রভোস্ট সূত্র জানায়, পাস করে বের হয়ে গেলেও তারা উভয়েই অবৈধভাবে হলে অবস্থান করছেন। তাদের ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না এ ব্যাপারে জনাতে চাইলে প্রক্টর জানায়, পুলিশ ব্যাপারটা দেখছে। যা ব্যবস্থা নেওয়ার পুলিশ নেবে।

এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়েছে কি না এ প্রশ্নের জবাবে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি (অপারেশন) মো. কামাল উদ্দিন জানান, কাউকে আটক করা হয়নি। তবে ঘটনার সত্যতা যাচাই ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফুয়াদ ও আতিক কে থানায় ডাকা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। তিনি আরও জানান, তদন্ত চলছে এবং মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মেডিকেল রিপোর্ট এলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ওডি/আরএআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড