• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনা : বশেমুরবিপ্রবির ট্যুরিজম বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন

  বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

১৫ মার্চ ২০২০, ১৭:৪০
বশেমুরবিপ্রবি
বশেমুরবিপ্রবির ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ (ছবি : সংগৃহীত)

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে ক্লাস বর্জন করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা। 

রবিবার (১৫ মার্চ) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

বিভাগের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গোপালগঞ্জে বিদেশফেরত ১১ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। আরও ২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এমতাবস্থায় তারা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে করোনা আতঙ্কে ভুগছেন। 

বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী মাসুম বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরিস্থিতি যতদিন পর্যন্ত স্বাভাবিক না হবে ততদিন পর্যন্ত আমরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে যাব।’

এ দিকে করোনা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মধ্যেও রয়েছে চাপা আতঙ্ক। 

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চললেও অনেক শিক্ষার্থী করোনা আতঙ্কে বাড়ি চলে গেছেন। অনেকেই বাড়ি যাওয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ইভেন্ট তৈরি করে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার পক্ষে জনমত সৃষ্টি করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা চাইছেন করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় অতিদ্রুত বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করা হোক।

আরও পড়ুন : চবিতে ক্লাস পরীক্ষা চালু রেখে গণজমায়েত নিষিদ্ধ

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের চলতি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান বলেন, ‘ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করার ব্যাপারটি আমার জানা নেই। করোনার প্রভাব নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ব্যাপারে সরকারিভাবে যে নির্দেশনা আসবে তা পালন করা হবে।’

ওডি/এমআরকে

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড