• শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১০ দফা দাবিতে আন্দোলনে আইআইইউসির শিক্ষার্থীরা

  আইআইইউসি প্রতিনিধি

১৮ নভেম্বর ২০১৯, ২২:৫৩
আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা (ছবি : সংগৃহীত)

১০ দফা দাবিতে চট্টগ্রামের আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (আইআইইউসি) ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন (ইটিই) ও কম্পিউটার অ্যান্ড কমিউনিকেশন (সিসিই) বিভাগের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমেছেন।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে তারা এই আন্দোলন শুরু করেন। আন্দোলন চলাকালীন দৈনিক অধিকারকে আন্দোলনকারীরা তাদের ন্যায্য দাবিগুলোর কথা জানান।

তাদের দাবিসমূহ হলো- বিগত দুই বছর ধরে আইইবি (IEB) সনদ নিয়ে ডিপার্টমেন্টে যে ধোঁয়াশা তৈরি করে রাখা হয়েছে দ্রুততম সময়ের মধ্যে তা সমাধান করতে হবে এবং নিয়মিতভাবে আপডেট দিতে হবে, নামাজের স্থানের উন্নয়ন করতে হবে, খাবারের ক্যান্টিনের সংকটের ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে, গত দুই সেমিস্টার যাবত ইটিই ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীদের টেলিকম ক্লাবকে শিক্ষক কর্তৃক ইচ্ছাকৃতভাবে জোরপূর্বক নিষ্ক্রিয় করে রাখা হয়েছে যার ফলে ছাত্ররা তাদের কো-কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিস থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে টেলিকম ক্লাবকে সচল করতে হবে এবং ক্লাবের সকল সদস্যকে আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করার মাধ্যমে এই অবস্থার পরিবর্তন আনতে হবে, অপর্যাপ্ত ক্লাসরুম এবং প্রয়োজনীয় উপকরণ বিহীন অপর্যাপ্ত ল্যাব সংকট নিরসনের ব্যবস্থা নিতে হবে। বিশেষ করে, ক্লাসরুম সমূহ স্বয়ংসম্পূর্ণ (ফিক্সড প্রজেক্টর এবং বড় রুমগুলো সাউন্ড সিস্টেম সহ) হতে হবে, দক্ষ ল্যাব টেকনিশিয়ান ও যুগোপযোগী ল্যাব ইকুইপমেন্টের ব্যবস্থা করতে হবে, ৪র্থ এবং ৫ম তলা পুরোপুরি ডিপার্টমেন্টের আওতায় আনতে হবে, বিদ্যমান যন্ত্রপাতির নিয়মিত দেখভাল এবং হালনাগাদ করতে হবে, সকল ক্লাসরুম ও ল্যাব শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করতে হবে, সকল ল্যাবে উন্নত মানের কম্পিউটার স্থাপন করতে হবে, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্যুর এবং ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিংয়ের জন্য উন্নত কোম্পানিগুলোর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ বজায় রাখতে হবে। (কোনো ধরনের জটিলতা ছাড়া সঠিক সময়ের ভিতর ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করে দিতে হবে), বিষয়ভিত্তিক দক্ষ শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে। (উল্লেখ্য, ইটিই ডিপার্টমেন্ট দীর্ঘদিন যাবত গুটিকয়েক সিনিয়র শিক্ষক ও গুটিকয়েক ফ্রেশ গ্র্যাজুয়েট শিক্ষক দ্বারা তাদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। যা ছাত্রদের জন্য ক্ষতিকর। অনতিবিলম্বে এই কৃত্রিম সংকট দূর করতে হবে, শিক্ষার্থীদের অবশ্যই একটি কমনরুমের ব্যবস্থা করতে হবে, ডিপার্টমেন্টে ইনডোর গেমস (টেবিল টেনিস, ক্যারাম) এর ব্যবস্থা থাকতে হবে, সব শেষে সাধারণ শিক্ষার্থীদের একটা প্রাণের দাবি ডিপার্টমেন্টের ভেতরে একটি লাইব্রেরির ব্যবস্থা করে দিতে হবে।

সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার অনুষদের ডিন অধ্যাপক মুহাম্মাদ দেলাওয়ার হোসাইন ঘটনাস্থলে এসে তাদের দাবিগুলোকে বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দেন। এ ব্যাপারে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি দৈনিক অধিকারকে বলেন, ‘আমরা আইইবির সঙ্গে যোগাযোগ করেছি তাদের সনদ নেওয়ার জন্য। আমরা এ ব্যাপারে খুব আন্তরিক। অন্যান্য সুবিধা দেওয়ার জন্য চেষ্টা করছি। আশা করছি সমস্যা গুলো খুব দ্রুত সমাধান করতে পারবো।’

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড