• মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সম্পদ ভাগাভাগি করলে দারিদ্র্য ইতিহাসে চলে যেত : গভর্নর

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:৪৭
গভর্নর
গভর্নর ফজলে কবির(ফাইল ফটো)

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেছেন, মানুষ সম্পদ ভাগাভাগি করে না, করলে আমাদের দেশের দারিদ্র্য ইতিহাসে চলে যেত।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে এলজিইডি ভবনে প্রাইম ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

গভর্নর বলেন, যদি আমরা সবাই সম্পদ শেয়ার (ভাগাভাগি) করতাম, যেখানে দরকার সেখানে দিতাম; সেটা হোক সামাজিকভাবে, প্রাতিষ্ঠানিকভাবে, পারিবারিকভাবে কিংবা ব্যক্তিগতভাবে; তাহলে কিন্তু আমাদের দারিদ্র্য ইতিহাসে চলে যেত।

রাশিয়ান এক লেখকের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, আপনি একটি মোমবাতি জ্বালিয়ে দেবেন, সেই মোমবাতি দিয়ে আবার হাজারো মোমবাতি জ্বালাবে। আজকে সম্মাননা পাওয়া ৪ জন ছাড়াও আমি দেখতে পাচ্ছি, এমবিবিএস চিকিৎসক ২৮৭ জন, বিসিএস ও সরকারি কর্মকর্তা ৫২ জন, ব্যাংকার ১৪২ জন, প্রকৌশলী ২২৮ জন এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষক ৭৫ জন রয়েছেন। চিকিৎসা ও শিক্ষকদের উদ্দেশ্য করে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর বলেন, আপনারা এই মোমবাতি জ্বালিয়ে দেবেন। এজন্য প্রাইম ব্যাংক আপনাদের সহায়তা করছে। 

বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কর্মসূচির আওতায় প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশন শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচিতে চলতি বছর দেশের ২৬৩ জন দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করার জন্য প্রত্যেক মাসে ২ হাজার ৬০০ টাকা করে দেওয়া হবে। গত ২০০৭ সাল থেকে প্রাইম ব্যাংক দীর্ঘমেয়াদে এই বৃত্তি প্রদান আসছে। 

আরও পড়ুন : বেড়েছে ডিমের দাম, সবজিতে স্বস্তি

প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সুনির্দিষ্ট ক্রাইটেরিয়াতে অত্যন্ত স্বচ্ছভাবে বৃত্তি প্রাপ্তদের নির্বাচন করা হয়। সারা দেশে গরিব ও মেধাবী যারা তাদের এই বৃত্তি প্রদান করা হয়। বৃত্তি প্রাপ্তদের সাফল্যের পরিমাণ ৯৮ শতাংশ।

অনুষ্ঠানে রিয়েল টাইম সুইচ চেপে বৃত্তি প্রাপ্ত সব শিক্ষার্থীর ব্যাংক হিসাবে প্রথম কিস্তির টাকা স্থানান্তর করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে প্রাইম ব্যাংকের বৃত্তি নিয়ে কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত মো.  আজাদ হোসেন, ইমাম উদ্দিন, তাসমিয়া ইসলাম ও তমালিকা কর্মকারকে ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানান অতিথিরা।  

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড