• শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘মাকে নির্যাতনের মতো মহা অপরাধ পৃথিবীতে নেই’

  বরগুনা প্রতিনিধি

২৭ আগস্ট ২০১৯, ১৫:৫২
বরগুনা
মাসুদ আলম (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় মাকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। নিজ ছেলের হাতে নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে বাধ্য হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে বিচার চেয়েছেন বৃদ্ধা মা জাহানারা বেগম (৮৫)।

অভিযুক্ত মাসুদ আলম বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আলী আকবরের ছেলে এবং ৪৬ নম্বর শিংড়াবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দাখিল করার সময় জাহানার বেগম সাংবাদিকদের জানান, স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে তিনি ছেলের মাসুদের সঙ্গে থাকতেন। কিন্তু প্রায়ই অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করত মাসুদ ও তার স্ত্রী। চলে যেতে বলত বাড়ি থেকে। এক সময় প্রতিবাদ করলে ছেলেসহ পুত্রবধূর হাতে অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে হতো।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নির্যাতনের বিষয়টি স্থানীয় সাংসদকে জানান জাহানারা বেগম। সাংসদ প্রধান শিক্ষককে ডেকে সাবধান করা সত্যেও কিছুক্ষণ পর তার বাসা থেকে বের হয়ে পাথরঘাটা কলেজের সামনে প্রকাশ্যে মাকে মারধর করেন মাসুদ। এরপর পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিত অভিযোগ করলে মাসুদ আলম আরও ক্ষিপ্ত হয়ে পুনরায় জাহানারা বেগমকে মারধর করেন।

স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, শিক্ষক মাসুদ আলমের বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারিসহ রয়েছে নানা অভিযোগ। সালিশ বৈঠকে জরিমানাও করা হয় একাধিকবার। এছাড়া শিক্ষক মাসুদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, মাদক ও সুদের ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক মাসুদ আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জমি সংক্রান্ত ঘটনায় মায়ের সঙ্গে একটু বিরোধ আছে। নির্যাতনের কোনো প্রশ্নই উঠে না।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমন জানান, মাকে নির্যাতন করার মতো মহা অপরাধ পৃথিবীতে নেই। অভিযুক্ত শিক্ষক মাসুদ আলমের ব্যাপারে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে ইতোমধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপপরিচালককে সুপারিশ প্রদান করেছি।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন বলেন, শিক্ষক মাসুম আলমের বিরুদ্ধে আগেও নানা অনিয়মের অভিযোগ পেয়েছি। আর প্রাথমিকভাবে মাকে নির্যাতনের ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার অধীনে তদন্ত চলছে। তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ কর হবে।

ওডি/এমবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড