• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ৬ মাঘ ১৪২৮  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবার নোয়াখালীতে ডেঙ্গুতে প্রাণ গেল ২ জনের

  সারাদেশ ডেস্ক

০২ আগস্ট ২০১৯, ২১:৩১
ডেঙ্গু রোগী
ডেঙ্গুতে আক্রান্তে নিহত মোশাররফ হোসেন রাজু ( ফাইল ফটো )

নোয়াখালীর সদর উপজেলায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে শুক্রবার (২ আগস্ট) সকালে মোশাররফ হোসেন রাজু (৩০) নামে এক রেলওয়ে কর্মকর্তা সদর উপজেলার মাইজদীর প্রাইম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মৃত মোশাররফ হোসেন রাজু সদর উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামের আবুল বাশারের ছেলে।

জানা যায়, ডেঙ্গু আক্রান্ত মোশাররফ হোসেন রাজু কুমিল্লা রেলওয়েতে চাকরি করতেন। কয়েকদিন ধরে জ্বর জ্বর বোধ করলে তিনি শুক্রবার সকালে নোয়াখালী প্রাইম হাসপাতালে ভর্তি হন। এর কিছুক্ষণ পর সেখানেই চিকিৎসধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে, জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায় আবদুল মোতালেব (২০) নামে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে একজন মারা গেছেন। তিনি উপজেলার মীর আলীপুর গ্রামের হারুনের ছেলে।

নিহতের পরিবার জানায়, মোতালেব ঢাকার চকবাজারে একটি ব্যাগের কারখানায় কাজ করত। তিন দিন আগে জ্বরে আক্রান্ত হলে তার বাবা তাকে গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। পরে তাকে বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা নোয়াখালী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মমিনুর রহমান বলেন, সকালে মাইজদীর বেসরকারি প্রাইম হাসপাতালে মোশারফ হোসের রাজু নামে রেলওয়ের এক কর্মকর্তা মারা গেলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিকালে ঘটনাটি আমাকে জানিয়েছে। তবে অন্যজনের মৃত্যুর খবর জানা নেই, সেই বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি।

ওডি/এসএএফ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড