• সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

ঘুষগ্রহণ ও দুর্নীতির অভিযোগে ভূমি কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

  ব্রাহ্মনবাড়িয়া প্রতিনিধি ১২ জুন ২০১৯, ১৭:৪৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়া
মো. বজলুল হক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর সদর ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. বজলুল হককে ঘুষগ্রহণ ও দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁনের নির্দেশে অভিযুক্ত ওই সহকারী কর্মকর্তাকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়।

জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন বলেন, তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমরা তাকে প্রত্যাহার করেছি এবং অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। যদি অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায় তাহলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে বুধবার দুপুরেই ওই ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষগ্রহণ ও দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগে নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের সামনের সড়কে সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করে ভুক্তভোগীরা।

মানববন্ধনে অভিযোগ করে স্থানীয়রা বলেন, নাসিরনগর সদর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. বজলুল হক ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা ছাড়া কোনো জমির দলিল খারিজ করেন না। আর কাগজপত্রে কোনো ত্রুটি থাকলে তিনি পাঁচগুণ টাকা আদায় করেন। অথচ সরকার কর্তৃক ভূমির খারিজের ফি ১ হাজার ১৫০ টাকা। চূড়ান্ত বিএস খতিয়ান আসার পরও দাগে সামান্য ভুল থাকলে জমির মালিকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেন বজলুল হক।

ওডি/এমবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর".*') OR (spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"নাসিরনগর".*')) AND id<>68260 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড