• বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্রেম, বিয়ে, ১৯ দিন পর লাশ

  ফেনী প্রতিনিধি

২৪ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২২
নোমান রায়হান ও স্ত্রী হাসনাত আরা রিম্পা
স্বামী নোমান রায়হান ও স্ত্রী হাসনাত আরা রিম্পা

ফেনী শহরের অ্যাকাডেমী এলাকার আতিকুল আলম সড়কের খাদেমের ভাড়া বাসা থেকে হাসনাত আরা রিম্পা (১৯) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) রাতে শহরের আতিকুল আলম সড়কের ওই ভাড়া বাসা থেকে স্ত্রী হাসনাত আরা রিম্পার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী ও শ্বশুর পলাতক রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে নিহত গৃহবধূর শাশুড়িকে। এ ঘটনায় নিহত রিম্পার মা মাসুদা বেগম বাদী হয়ে মেয়ের জামাতা, শ্বশুর, শাশুড়িকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জেলার ছাগলনাইয়া পৌর এলাকার বাঁশপাড়ার সৌদি প্রবাসী মো. শাহ আলমের মেয়ে হাসনাত আরা রিম্পার সাথে একই উপজেলার ঘোপাল ইউনিয়নের নিজকুঞ্জরা সমিতি বাজার এলাকার নুরের নবীর ছেলে মো. নোমান রায়হানের (২৫) সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। 

রিম্পার অন্যত্র বিয়ে ঠিক হয়েছে এমন খবর পেয়ে গত ৩০ সেপ্টেম্বর রাতে রিম্পাদের বাড়িতে গিয়ে তার সহযোগীদের দিয়ে জোরপূর্বক রিম্পাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে চলতি মাসের ৫ তারিখে বিয়ে করে শহরের আতিকুল আলম সড়কে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতো নোমান রায়হান। 

স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পাশের বাসার লোকজন নোমানদের বাসায় কোনো শব্দ না পেয়ে দরজায় আঘাত করতে থাকে। এতেও কোনো শব্দ না পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে ফেনী মডেল থানার এসআই দুলালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে রিম্পার লাশ দেখতে পায়। 

পরে উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ঘটনার পর থেকে স্বামী মো. নোমান রায়হান ও শ্বশুর নুরের নবী পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে শাশুড়িকে।

নিহতের মা মাসুদা বেগমের অভিযোগ করেন, বিয়ের পর অজ্ঞাত স্থানে মেয়েকে নিয়ে নোমান বাস শুরু করলে মাঝে মধ্যে মেয়ের সাথে ফোনে যোগাযোগ হতো বলে জানান তিনি। কিন্তু এর মাঝেই যৌতুকের জন্য নোমান ও তার পরিবারের সদস্যরা রিম্পার ওপর নির্যাতন চালাত। নির্যাতনের ঘটনা মা-বাবাকে জানালে ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামী নোমান তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেন নিহতের মা।

এ ঘটনায় নোমান ও তার পরিবারের সদস্যদের আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের পরিবার। 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড