• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মধ্যরাতে তালাক দেওয়া স্বামীকে তুলে নিয়ে পুরুষাঙ্গ কাটার চেষ্টা

  আবুবকর মিল্টন, বাউফল (পটুয়াখালী)

০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৪:১৩
মধ্যরাতে তালাক দেওয়া স্বামীকে তুলে নিয়ে পুরুষাঙ্গ কাটার চেষ্টা
ভুক্তভোগী যুবক (ছবি : অধিকার)

চূড়ান্ত মাশুল এভাবে গুনতে হবে তা স্বপ্নেও ভাবতে পারেননি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ২২ বছর বয়সী যুবক তানজিল হোসেন। সদ্য তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ওই যুবকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার চেষ্টা চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

গত শনিবার ভোর রাতে উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের ভরিপাশা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। যদিও এ ঘটনায় মেয়ের পরিবারের ভয়ে মুখ খুলতে পারছেন না ভুক্তভোগী ছেলের পরিবার। উল্টো ছেলের পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রেম গঠিত বিষয়ে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে একই এলাকার আ. মান্নান গাজীর মেয়ে রুবিনা বেগমের সাথে পরিবারের অমতে তানজিল হোসেনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর লোক লজ্জার ভয়ে এলাকা ছেড়ে চলে যান তানজিল। এরপর গত ১৩ আগস্ট স্ত্রী রুবিনার পরিবার মেয়েকে দিয়ে স্থানীয় কাজীর মাধ্যমে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা আদায়ে তানজিল হোসেনকে তালাক দিয়ে দেয়।

এ বিষয় অসুস্থ তানজিল বলেন, গত এক সপ্তাহ আগে জ্বর নিয়ে নিজ বাড়িতে আসি, রাত ১২টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সারা দিতে ঘরের বাহিরে যাই। এ সময় রুবিনার ভাই আ. কুদ্দুসের নেতৃত্বে ৫/৬ জনের একটি দল পিছন থেকে মুখ বেঁধে (মেয়ের বাড়িতে) তুলে নিয়ে আমার উপর রাতভর নির্যাতন চালায়। এরপর আমি অজ্ঞান হয়ে যাই।

সেখানে কুদ্দুসের নিজ বসত ঘরের সিঁদ কেটে তানজিলকে চোর সাব্যস্ত করতে চেষ্টা চালানো হয়। পরে তারা তানজিলকে মারধর করে। এক পর্যায়ে তানজিলের পুরুষাঙ্গ কেটে নেয়ার চেষ্টাও চালানো হয়। তানজিলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে সকাল ৬টার দিকে তানজিলের পরিবার পুলিশ নিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ সময় রুবিনার ভাই মামলা না করতে তানজিলের পরিবারকে হুমকি দেয়। পরের দিন তারা উল্টো মামলা করে তানজিলের পরিবারের লোকদেরকে হয়রানি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে তানজিলের মা পারভিন বেগম জানান, তানজিল ঘরের দরজা খোলা রেখে বাহিরে যায়। অনেক সময় ধরে ঘরে ফিরছে না দেখে আমরা খুঁজতে বের হই। এ দিক সে দিক খোঁজাখুঁজি করতে থাকি। অবশেষে ভোর সারে ৫টার দিকে জানতে পারি তানজিল রুবিনার পরিবারের কাছে আটক রয়েছেন। পরে ৬টার দিকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. দিবা দেবনাথ জানান, তানজিলের পুরুষাঙ্গে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ৩ সেন্টি মিটার কাটা চিহ্ন রয়েছে। ৬-৭টি সেলাই লেগেছে। তার হাতে সেলাই করতে হয়েছে। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে রুবিনার ভাই আ. কুদ্দুস বলেন, আমার বাসা চুরি করতে এসেছিল তানজিল। আমারা তাকে ধরে পুলিশে দিয়েছি। তার গায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, চুরি করে পালানোর সময় পরে গিয়ে বিভিন্ন অঙ্গ কেটে গেছে।

পুলিশের এসআই নাসির হোসেন জানান, শনিবার ভোরে ৯৯৯ অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আমিসহ আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়ের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করি। তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এ ব্যাপারে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তানজিলকে উদ্ধার করে। তার চিকিৎসা চলছে। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড