• বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সংস্কারের উদ্যোগ নেই, হড়িচন্ডী সড়কে ভোগান্তি

  সাজ্জাদুল আলম শাওন, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর)

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:২৩
ভাঙা সেতু
ভাঙা সেতু (ছবি : অধিকার)

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় মণ্ডল বাজার খোলাবাড়ী সড়ক থেকে চর বাহাদুরাবাদ হড়িচন্ডী সড়কে মধুর বাড়ির কাছে খালের ওপর নির্মিত সেতু দিয়ে যানচলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। জানা গেছে, ৫ বছর আগে বন্যায় পানির স্রোতে একপাশ দেবে গিয়ে সেতুটির দু’পাশের এপ্রোচ সড়কের কিছু অংশ ভেঙে যায়। এ কারণে ওই প্রয়োজনের তাগিদে অন্য কোনো উপায়ন্তর না পেয়ে ভাঙা সেতুর ওপর দিয়ে ঝুঁকি নিয়েই প্রতিদিন চলাচল করছে যানবাহন ও পথচারী। সেতুটি দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

উপজেলার মন্নিয়ারচর, চরবাহাদুরাবাদ, হড়িচন্ডীসহ কয়েকটি গ্রামের লোকজনের যাতায়াতের জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের অর্থায়নে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের ৪ বছর পর বন্যায় পানির স্রোতে নিচের মাটি সরে গিয়ে সেতুটির পশ্চিম পাশ অনেকটা দেবে যায়। দু’পাশের এপ্রোচ সড়কও খানিকটা ভেঙে যায়। এ অবস্থায় ওই সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচলের সময় দেবে যাওয়া দিকে হেলে পড়ে।

দু’পাশের ভেঙে যাওয়া এপ্রোচ সড়ক স্থানীয়রা নিজেদের উদ্যোগে বাঁশ দিয়ে সাঁকো বানিয়ে সেতু ও সড়কের সাথে সংযোগ স্থাপন করে। এতে চলাচলের ব্যবস্থা হলেও ঝুঁকির মাত্রা বেড়ে যায়। ওই সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল যেখানে দুর্ভোগময়, সেখানে পণ্য বা মালভর্তি চলাচল সম্পূর্ণরূপে ঝুঁকিপূর্ণ। এ কারণে সেতুর উত্তর ভাগের কয়েকটি গ্রামের হাজার হাজার মানুষকে প্রতিদিনের যাতায়াতে পোহাতে হচ্ছে চরম ভোগান্তি। এ অঞ্চলের কৃষকদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণও হয়ে উঠেছে চরম দুর্ভোগময়।

সেতুটি দীর্ঘদিনেও সংস্কার বা পুণর্নির্মাণ না করায় কেউ গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে দ্রুত হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে নিতেও ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। ওই এলাকায় অগ্নিকাণ্ড ঘটলেও পৌঁছে না ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি। ভাঙা সেতুর ওপর দিয়ে চলাচলে বেশি ভোগান্তি পোহাচ্ছে স্কুল-কলেজ ও মাদরাসার শিক্ষার্থীরা।

পূর্ব কাজলাপাড়া গ্রামের মো. বাবুল মিয়া বলেন, সেতুটি বেশ কয়েক বছর থেকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত। ওই সেতুর ওপর দিয়ে চলাচল করা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এলাকাবাসী দ্রুত সেতুটি সংস্কার বা পুণর্নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন।

চিকাজানী ইউপি চেয়ারম্যান মো. মমতাজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, সেতুটি বন্যায় দেবে যাওয়ার পর থেকে ওই অঞ্চলের মানুষের যাতায়াত হয়ে উঠেছে দুর্ভোগময়। এলাকাবাসীর যাতায়াতের কথা চিন্তা করে সেতুটি দ্রুত সংস্কার করা দরকার।

আরও পড়ুন : নওগাঁয় অপরাধের রাজ্য গড়েছে সোনামুল গ্যাং

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে আমি ইতোপূর্বে জ্ঞাত ছিলাম না। এ উপজেলায় আমি নতুন যোগদান করেছি। বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড