• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ৬ মাঘ ১৪২৮  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কালীগঞ্জে মোটা অঙ্কের টাকায় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন

  আরাফাত আলী, কালীগঞ্জ (সাতক্ষীরা)

০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০৪
কালীগঞ্জে মোটা অঙ্কের টাকায় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন
দারুল উলুম চৌমুহনী ফাজিল মাদরাসা। ছবি : অধিকার

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও উপজেলা পরিষদের এক শীর্ষ জনপ্রতিনিধির যোগসাজসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে অনিয়মতান্ত্রিকভাবে সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার দারুল উলুম চৌমুহনী ফাজিল মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।

কোনো প্রকার তপশীল বিজ্ঞপ্তি ছাড়া গত (৪ অক্টোবর) নিয়ম বহির্ভূতভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করলেও অত্র মাদরাসা ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক এমনকি শিক্ষকেরাও কিছুই জানেননা।

অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ২৯ সেপ্টেম্বর দারুল উলুম চৌমুহনী ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আব্দুল কাদের হেলালী ম্যানেজিং কমিটি গঠনের জন্য নির্বাচন চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও অত্র মাদরাসার সভাপতি বরাবর আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামকে প্রিজাইডিং অফিসার হিসাবে নিয়োগ দেন।

অনুসন্ধানে আরও জানা যায়, প্রিজাইডিং অফিসার হিসাবে দায়িত্ব হাতে পেয়ে উপজেলা পরিষদের একজন শীর্ষ জনপ্রতিনিধি এবং অত্র মাদরাসার অধ্যক্ষ আব্দুল কাদের হেলালীকে নিয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মৎস্য কর্মকর্তা দফারফা করেন। অধ্যক্ষের বকেয়া বেতনের টাকা আদায়ের জন্য কাউকে না জানিয়ে কোনো বিজ্ঞপ্তি তপসীল ছাড়া মৎস্য কর্মকর্তা তার অফিসে বসে নিজেদের পছন্দের ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করেন। তবে গত (২৩ অক্টোবর) উপজেলার শীর্ষ জনপ্রতিনিধির ঘনিষ্ঠ ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম, অভিভাবক শেখ আবু মোতালেব ও সইলুদ্দীন গাজীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীটায় নির্বাচিত দেখানো হয়েছে। অথচ বিষয়টি কাকপক্ষীও টের পায়নি।

ওই মাদরাসার সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার রবিউল ইসলাম। কিন্তু নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে কিনা এ বিষয়ে কিছুই জানেননা এই কর্মকর্তা। অথচ তিনি নির্বাচন দেখিয়ে পনের সদস্যের একটি ম্যানেজিং কমিটির জন্য অধ্যক্ষ অনুমোদনের জন্য ঢাকা ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বরারব কাগজে সুপারিশ পাঠিয়েছেন। আওয়ামী লীগ নেতা হত্যাসহ প্রায় ডজনখানেক সহিংস মামলার আসামি অত্র মাদরাসার অধ্যক্ষ আব্দুল কাদের হেলালী।

অধ্যক্ষ তার অর্ধকোটি টাকা বেতন ছাড় করানোর জন্য এ নির্বাচন সম্পন্ন করেছে। অধ্যক্ষ আব্দুল কাদের হেলালী নিজের স্বার্থের জন্য ভুল বুঝিয়ে রেজুলেশন খাতায় কয়েকজনের নিকট থেকে স্বাক্ষর করে নিয়েছেন। ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসার হিসাবে উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তার অফিসে বসে তার ঘনিষ্ঠ তিনজনকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত দেখিয়ে নির্বাচন সম্পন্ন করেছেন বলে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার সময় সরেজমিনে দারুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে গেলে অভিভাবক সদস্য সোহাগ, মিজানুর রহমান, মেনন, নুর মোহাম্মাদ, শেখ আব্দুল হান্নান, দাতা সদস্য আবু তালেব, প্রাক্তন সভাপতি নুরুল হক সরদার, ছাড়াও অত্র মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক নুরুল আমিন, আসাদুল ইসলাম, নুর ইসলাম, মোবারক, সাজিদ, আমজাদ হোসেন, পিয়ন, সবুর, সাকেরসহ মাদ্রাসা সংলগ্ন বাজারের ব্যবসায়ী আলিম আল রাজি, তাপস, সুমন, আরিফুল, আব্দুর রহিম, আনারুল, মনির, রনু, সাইফুল, মাহফুজ, আশিক ইকবাল, মইনুল হাসান সোহেলসহ অনেকে সাংবাদিকদের জানান, অনেকদিন যাবত মাদ্রাসা বন্ধ ছিল। শুধুমাত্র ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষার জন্য কয়েকদিন আগে মাদ্রাসা খোলা হয়েছে। নির্বাচন বিষয়ে তারা কিছুই জানেননা।

তারা আরও বলেন, ধুরন্ধর অধ্যক্ষ জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের হেলালী, তার নিজের বকেয়া বেতন ছাড় করানোর জন্য এসব কিছু করে বেড়াচ্ছেন। সে উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদীর নির্দেশে সব কিছু করেছে। হত্যা মামলাসহ প্রায় ডজনখানেক সহিংসতা মামলার আসামী তিনি। এ কারণে সাড়ে তিন বছর মাদ্রাসা থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয় তাকে। ২০২০ সালের মার্চ মাসের শুধুমাত্র বেতনের জন্য আদালতের নির্দেশে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেতন বিলে সহি করার নির্দেশনা আছে। এ সংক্রান্ত বিষয়ে হাইকোর্টে মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

ঘটনার সত্যতা জানার জন্য দারুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আব্দুল কাদের হেলালীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপনাদের এ সমস্ত বিষয়ে জানার কি দরকার? কে আপনাদের জানতে বলেছে? আমি নিয়ম মাফিক নির্বাচন করেছি।

তবে ম্যানেজিং কমিটির এই নির্বাচন সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানটির ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও শিক্ষকরা জানেন কিনা এ প্রশ্নের কোন সদুত্তোর তিনি দিতে পারেন নি।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা ও প্রিজাইডিং অফিসার শফিকুল ইসলামের কাছে এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কাগজপত্র আছে। তবে তিনি নির্বাচনের ফলাফল ছাড়া আর কোন কাগজই দেখাতে পারেনি।

ঘটনার আরও সত্যতা জানার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দারুল উলুম চৌমুহনী ফাজিল মাদরাসার সভাপতি খন্দকার রবিউল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন করতে বলেছি। আমি জানি মৎস্য অফিসার একজন ভালো লোক তিনি এমন কোনো অনিয়ম করতে পারে ভাবতেও অবাক লাগছে। বিষয়টি আমি ক্ষতিয়ে দেখছি।

ওডি/এসএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড