• রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পরিবারের ৮ পুরুষের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

  আল মামুন জীবন, ঠাকুরগাঁও

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:৩৪
ছবি : দৈনিক অধিকার

ঠাকুরগাঁওয়ে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে হামলার শিকার কয়েকটি পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিপক্ষ ও স্থানীয় পুলিশি হয়রানির ভয়ে ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে ভুক্তভোগী পরিবারের ৮ জন পুরুষ।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে নিরাপত্তা চেয়েছে পরিবারটির নারী সদস্যরা।

সংবাদ সম্মেলনে হামলার শিকার পরিবারের পক্ষে মাসুমা সুলতানা অভিযোগ করেন, ‘গত ২৩ ফেব্রুয়ারি দুপুরে জমি দখলকে কেন্দ্র করে জেলা শহরের এসিল্যান্ড বস্তির আদম আলী ও তার ছেলে শাকিল তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা চালায়। এতে আমরা গুরুতর আহত হই।’

তিনি আরও বলেন, ‘শুধু তাই নয়, আহতদের হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের ভেতর আমাদের লোকজনের উপর হামলা চালায় শাকিলবাহিনী। এ সময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ভয়ে অন্যত্র গিয়ে আশ্রয় নেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই পালিয়ে যায় তারা।’

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাসুমা আরও জানান, ‘ঘটনার পরের দিন আমার দেবর রুবেলকে সদর উপজেলার জামুরিপাড়া বাসা থেকে তুলে এনে বেধড়ক মারপিট করে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে রাখে শাকিল, সোহেলসহ তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।’

জানা গেছে, ওই এলাকার প্রায় তিন একর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আদম আলী ও রেজাউলের মধ্যে আদালতে মামলা চলমান।

রেজাউলের পরিবারের দাবি, দুটি মামলার রায় তাদের পক্ষে পেয়েছেন তারা। ওই পরিবারের বিউটি আক্তার অভিযোগ করে বলেন, আদম আলী একজন মাদক কারবারি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ। এছাড়া আদম আলীর ছোটভাই সোহেল রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় মাদকের রাজত্ব কায়েম করেছে। তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আমরা আজ বাড়ি ছাড়া হয়েছি। অথচ আদম আলীর সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের উপর হামলা চালিয়ে উল্টো মিথ্যা মামলা দিয়ে পুলিশি হয়রানি করছে। এ অবস্থায় আমাদের বসতভিটায় পরিবারের কেউ প্রবেশ করতে গেলে অনবরত প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। বসতবাড়িতে রেখে আসা আসবাবপত্র ভাঙচুরসহ ব্যবহৃত মোবাইল, হাঁস, কবুতর, গরু, বাইসাইকেল, স্বর্ণালঙ্কারসহ কাপড়চোপড় লুট করে নিয়ে গেছে তারা। এ ঘটনায় আমরা দিশেহারা হয়ে জীবনের নিরাপত্তার কথা ভেবে সদর থানায় অভিযোগ দিতে গেলে ওসি আমাদের মামলা না নিয়ে উল্টো দুর্ব্যবহার করেন। কুলকিনারা না পেয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য হয়েছি।

সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের সদস্য বিউটি আক্তার, মাসুমা সুলতানা, জোসনা বেগমসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভীরুল ইসলাম জানান, রেজাউলের পরিবারের সাথে পুলিশ কোন ধরনের দুর্ব্যবহার করেনি। এটা মিথ্যা কথা। তা ছাড়া আমরা খোঁজখবর নিয়ে আদম আলীর বিরুদ্ধে মাদকের কোনো অভিযোগ পাইনি। এসিল্যান্ড বস্তির দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা পুলিশ গুরুত্বের সাথে তদন্ত করছে।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি জমি দখলকে কেন্দ্র করে শহরের এসিল্যান্ড পাড়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে ৫জন আহত হয়। আহতরা এখনও ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আদম আলীর লোকজন থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। অন্য পক্ষ থানায় মামলা না নেওয়ার কারণে আদালতের স্মরণাপন্ন হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড