• সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

টঙ্গীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৮ মামলার আসামি নিহত

  গাজীপুর প্রতিনিধি

২৩ মে ২০২০, ১২:৫১
বন্দুকযুদ্ধ
ছবি : সংগৃহীত

গাজীপুরের টঙ্গীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শামীম হোসেন ওরফে হাসান (৩০) নামে এক সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। শামীম হত্যা, ডাকাতি, অস্ত্র, পুলিশের ওপর হামলা ও মাদকসহ ১৮টি বিভিন্ন মামলার আসামি। শুক্রবার (২২ মে) রাতে এ বন্দুকযুদ্ধ সংঘটিত হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন।

নিহত শামীম গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গীর মাজারবস্তি এলাকার রুহল আমিনের ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর।

র‌্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার জানান, ‘শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী বাজারের পাশে সেনা কল্যাণ ভবনের কাছে মাজারবস্তি এলাকায় একদল মাদক ব্যবসায়ী ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী অবস্থান করছিল। 

র‌্যাব-১-এর সদস্যরা সেখানে উপস্থিত হলে সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়েন। দু’পক্ষের গুলি বিনিময়ের একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে পালিয়ে যায়। এ সময় সন্ত্রাসী শামীম হোসেন ওরফে হাসান গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ সময় র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব সদস্যরা দুটি বিদেশি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলি, ৮০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে।’

তিনি আরও জানান, শামীম টঙ্গী ও বনানী থানার একজন মোস্ট ওয়ান্টেড আসামি। সে ও তার দল টঙ্গী, উত্তরা ও বনানী এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতো বলে জানা গেছে। 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড