• সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঠাকুরগাঁওয়ে মেলার নামে চলছে অশ্লীল নৃত্য, লটারি ব্যাণিজ্য

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

২১ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:২৭
মেলা
মেলা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

দেশে যখন জুয়া, ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চলমান। এমন সময় ঠাকুরগাঁওয়ের চিত্রটা উল্টো। ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া আজাদ মেলায় যাত্রাপালার নামে চলছে অশ্লীল নৃত্য। সঙ্গে অনুমোদনহীন লটারির ফাঁদে পড়ে প্রতারণার শিকার হয়ে নিঃস্ব হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। 

তবে এমন কিছু প্রশাসনের চোখের সামনে ঘটলেও নজরদারি নেই। খোদ ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেনের বাড়ির পার্শ্বে বসেছে এমন জুয়ার আসর। এমপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে বিষয়টি তাদের অজানা। খোঁজ নিয়ে লটারি নামক জুয়া বন্ধ করা হবে। 

জেলা শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দুরে ঠাকুরগাঁও-১ আসনের এমপি রমেশ চন্দ্র সেনের বাস ভবন। বাস ভবনের পাশেই ১১ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে রুহিয়া আজাদ মেলার উদ্বোধন করা হয়। এতে স্থানীয় আ. লীগের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা এ মেলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে মেলার আয়োজক কমিটিকে নির্দেশ দেওয়া হয় সেখানে গরু-মহিষের হাট, শিশুদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থাসহ ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার ঘটানোর। কিন্তু মেলার আয়োজক কমিটি সেখানে নৃত্য যাত্রাপালা ও লটারির জমজমাট বাণিজ্য খুলে বসেছে। 

বুধবার (২১ নভেম্বর) রাতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩০ থেকে ৪০টি অটোবাইকযোগে মাইক নিয়ে নিয়োগকৃত কর্মীরা লটারি বিক্রি করতে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ছুটেছেন। পুরস্কার হিসেবে মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, কালার টেলিভিশনসহ আকর্ষণীয় সামগ্রী প্রলোভন দেখিয়ে প্রতিটি লটারির টিকিট বিক্রি করছেন ২০ টাকায়। আর দিন শেষে ৭১টি বাক্স ভর্তি বিক্রির লটারির অংশ মেলায় আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে রাত ১টা পর্যন্ত পরিচালনা করে উপস্থিত ব্যক্তিদের মাধ্যমে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন। আর যারা অনুপস্থিত তাদের জন্য লটারি অনুষ্ঠানটি স্থানীয় ক্যাবল টিভির মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করছে। 

অন্যদিকে সারারাত চলছে নৃত্য যাত্রা। চলমান পিইসি পরীক্ষার্থীরা লেখা-পড়ায় মনযোগী না হয়ে টিভির পর্দায় লটারি অনুষ্ঠান দেখছে।  এ অবস্থায় অবিলম্বে মেলা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবসী। 

এ বিষয়ে মেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ঠাকুরগাঁও চন্দ্র সেন জানান, মেলায় তেমন বেচা-কেনা নেই। তাই লটারি চালিয়ে মেলা পরিচালনার জন্য কিছু টাকা আয় করছি মাত্র। তবে আমরা সচেতনভাবেই মেলা পরিচালনা করছি। 

রুহিয়া থানার ওসি চিত্ত রঞ্জন জানান, মেলায় লটারির অনুমতি নেই। মেলা কমিটি আমাদের না জানিয়ে তা পরিচালনা করছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

ওডি/এসজেএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪, ০১৯০৭৪৮৪৮০০ 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড