• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

অবিশ্বাস্য রোনালদো, অতুলনীয় রোনালদো

গোলের পর উল্লাসে রোনালদো; (ছবি : গোলডটকম টুইটার)

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের দ্বিতীয় রাউন্ড তথা শেষ ১৬ দলের খেলায় গত সপ্তাহে প্রথম লেগে স্পেনের ক্লাব অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে তাদের মাঠে ২-০ গোলের ব্যবধানে হারে ইতালির ক্লাব জুভেন্তাস। মঙ্গলবার (১২ মার্চ) রাতে ইতালির রাজধানী তুরিনে জুভেন্তাসের মাঠে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় বা ফিরতি লেগে অতিমানবীয় কিছু করতে না পারলে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে যেতে হতো জুভদের। পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর অসাধারণ ও অতিমানবীয় এক হ্যাটট্রিকে অ্যাতলেটিকোকে ৩-০ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ গোলের অগ্রগামিতায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালের (শেষ আট দল) টিকেট পেল ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্তাস।

অসম্ভবকে কেবল সম্ভব করে দেখাতে পারেন রোনালদো। ম্যাচের আগের দিন বলেছিলেন জুভেন্তাস জিতবে বিশ্বাস তার, জিততে নিজের সবটুকুই দেবেন তিনি। এবার তাই করে দেখালেন রোনালদো। এই তুরিনে গত বছর রিয়ালের হয়ে জুভ দর্শকদের কাঁদিয়েছিলেন তিনি। এবার সেই তুরিনে হ্যাটট্রিক করে জুভ দর্শকদের রোমাঞ্চে ভাসালেন সিআরসেভেন। বিদায় করে দিলেন অ্যাতলেটিকোকে।

অ্যাতলেটিকোর রক্ষণ যে ইউরোপের অন্যতম সেরা সেটাই ছিল চিন্তার বড় কারণ। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মঞ্চে বরাবরই সেরা রোনালদো। সেটাই আরও একবার প্রমাণ করলেন। ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল জুভেন্তাস। ম্যাচের পাঁচ মিনিটেই কিয়েল্লিনির গোলে এগিয়ে গেলেও রেফারি ভিআর-এর সাহায্যে গোল বাতিল করেন। পরে ম্যাচের ২৭ মিনিটে দুর্দান্ত এক হেডে গোল করে তুরিনের দর্শকদের জাগিয়ে তোলেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা রোনালদো।

১-০ গোলের লিড নিয়েই প্রথমার্ধ শেষ করে স্বাগতিকরা। যদিও বিরতি থেকে ফিরেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে জুভেন্তাস। আবারও গোলদাতা সেই রোনালদো। ৪৯তম মিনিটে জোয়াও কানসেলোর ক্রস থেকে হেডে করেন লক্ষ্যভেদ। পর্তুগিজ উইঙ্গারের হেড অ্যাতলেটিকো গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক প্রতিহত করলেও বল পেরিয়ে গিয়েছিল সীমানা। গোল লাইন প্রযুক্তিতে ব্যবধান ২-০ করে জুভেন্তাস।

আর অ্যাতলেটিকোর কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন রোনালদো শেষ বাঁশির চার মিনিট আগে। ম্যাচের ৮৬তম মিনিটে স্পট কিক থেকে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করলেন রোনালদো। বক্সে ঢোকা বের্নারদেস্কিকে পেছন থেকে অ্যাঞ্জেল কোররেয়া ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় জুভেন্তাস। আর এই গোলেই জুভেন্তাসকে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে নিয়ে গেলেন রোনালদো।

দুর্দান্ত এই পারফর্মে রোনালদো চ্যাম্পিয়নস লিগে মেসির সমান আটটি হ্যাটট্রিক পূর্ণ করলেন। ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতায় রোনালদোর একার গোল ১২৪টি যেখানে দল হিসেবে অ্যাতলেটিকোর গোল ১১৮টি। এছাড়া ফুটবলের চতুর্থ দল হিসেবে ঘরের মাঠে ২-০ গোলে জিতেও নকআউট পর্ব থেকে বিদায় নেওয়া দল তারা। সিমিওনের দল গোলে শট নিতে পারেনি একটিও। ২০০৮ সালের পর চ্যাম্পিয়নস লিগে এমন আর দেখা যায়নি।

এএপি 

সংশ্লিষ্ট ঘটনা সমূহ : উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড