• মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাউলকে টপকে জয়ের রেকর্ডের আরও কাছে মেসি

লিওনেল মেসি
জিরোনার বিপক্ষে ম্যাচের ৬৮তম মিনিটে লক্ষ্যভেদ করেন বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি (ছবি : বার্সেলোনা টুইটার)

স্প্যানিশ লা লিগায় আরও একটি রেকর্ড হাতছানি দিয়ে ডাকছে বার্সেলোনার প্রাণভোমরা লিওনেল মেসিকে। লিগে আর মাত্র সাতটি ম্যাচ জিততে পারলেই প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ম্যাচ জেতার রেকর্ড গড়বেন এই আর্জেন্টাইন।

রবিবার রাতে জিরোনার মাঠে ২-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। ম্যাচের নবম মিনিটে নেলসন সেমেদোর গোলে এগিয়ে যাওয়া কাতালানরা দ্বিতীয়ার্ধে ৬৮তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ৩১ বছর বয়সী মেসির লক্ষ্যভেদে। আর এই জয়ে ক্ষুদে জাদুকর টপকে গেছেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা রাউল গঞ্জালেজকে।

লা লিগায় সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জয়ের তালিকায় তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছেন মেসি। লিগে ৪৩৭ ম্যাচের ৩২৮টিতেই শেষ হাসি হেসেছেন তিনি। তার চেয়ে ১১৩ ম্যাচ বেশি খেলা স্প্যানিশ স্ট্রাইকার রাউল জিতেছিলেন ৩২৭টিতে।

জয়ের সংখ্যায় এখন মেসির উপরে আছেন কেবল স্পেনের কিংবদন্তি দুই সাবেক গোলরক্ষক আন্দোনি জুবিজারেতা ও ইকার ক্যাসিয়াস। অ্যাথলেটিক বিলবাও, বার্সেলোনা ও ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে খেলা জুবিজারেতা ৬২২ ম্যাচ খেলে জিতেছিলেন ৩৩৩টি। আর রিয়াল ছেড়ে ২০১৫ সালে পর্তুগালে পাড়ি জমানো 'সেইন্ট ইকার' ৫১০ ম্যাচে জয়ের স্বাদ ৩৩৪ বার।

উল্লেখ্য, স্পেনের পেশাদার ফুটবলের সর্বোচ্চ স্তর লা লিগার ইতিহাসে সর্বকালের সেরা গোলদাতা মেসি। পাশাপাশি এই প্রতিযোগিতায় এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোল করার রেকর্ডও তার দখলে। ২০১১-১২ মৌসুমে তিনি প্রতিপক্ষের জাল কাঁপিয়েছিলেন ৫০ বার।

মেসির স্মরণীয় দিনে লা লিগার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে নিজেদের অবস্থান আরও সুসংহত করেছে বার্সা। লিগে টানা অষ্টম জয়ে ২১ ম্যাচে তাদের অর্জন ৪৯ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের সংগ্রহ ৪৪ পয়েন্ট। রাতের পরের ম্যাচে এস্পানিয়লকে ৪-২ গোলে হারানো রিয়াল মাদ্রিদের অর্জন ৩৯ পয়েন্ট। তালিকার তিনে তারা।

এসএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড