• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

জিয়ার পরিচয় তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী : রেলমন্ত্রী||কলকাতায় চিকিৎসা করাতে যাওয়া ২ বাংলাদেশিকে পিষে মারল জাগুয়ার||ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদের ফরম বিক্রি শুরু ||ইহুদিবাদী ইসরায়েলের প্রস্তাব নাকচ করে দিল মার্কিন সাংসদ||ভারতকে অবিলম্বে কাশ্মীরের কারফিউ তুলতে বলেছে ওআইসি||‘তদন্ত করতে হবে কেন এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে’||ইউক্রেনের হোটেলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৮ জনের প্রাণহানি||‘অগ্নিকাণ্ডে কেউ চাপা পড়েছে কিনা তল্লাশি চলছে’ ||মুক্তিপ্রাপ্ত ইরানের সুপার ট্যাঙ্কারটি আটকে এবার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ারেন্ট জারি||অবৈধ অভিবাসন ইস্যুতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী  
eid

রাসূল (সা.) এর ভবিষ্যৎ বাণী (৭ম পর্ব)

রাসূল
ছবি : প্রতীকী

মদিনার সাদা ভবন অবরোধ- 

হযরত ঈসা আ. ও ইমাম মাহদীর আগমণের পূর্বে মদিনার সাদা ভবনসহ সমগ্র মদিনা মুনাওয়ারা অবরোধ করা হবে। 

সাহাবি আব্দুল্লাহ ইবনে উমার রা. বলেন, অদূর ভবিষ্যতে মদিনার মুসলমানগণ অবরোধের শিকার হবে। এমনকি তাদের শেষ মোর্চাটি হবে “সালাহ” নামক স্থানে। “সালাহ” খায়বারের সন্নিকটে অবস্থিত একটি জায়গার নাম। (সুনানে আবু দাউদ, হা -৪২৫০, ৪২৯৯, সহীহ ইবনে হিব্বান, হা-৬৭৭১) 

খায়বারের অবস্থান মদিনা থেকে ষাট মাইল দূরে। বর্তমানে সেই “সালাহ” স্থানে মার্কিন ঘাটি অবস্থিত। 

সাহাবী মু’আয ইবনে জাবাল রা. বলেন, রাসূল (সা.) বলেছেন, বাইতুল মাক্বদিস (মসজিদুল আক্বসা) আবাদ হওয়া মাদিনার ক্ষতির কারণ হবে। মাদিনার ক্ষতি মালহামা বা মহাযুদ্ধের প্রেক্ষাপট তৈরি করবে। মহাযুদ্ধ কুস্তুনতুনিয়া (ইস্তাম্বুল) বিজয়ের কারণ হবে। কুস্তুনতুনিয়া (ইস্তাম্বুল) বিজয় দাজ্জালের আবির্ভাবের কারণ হবে। হাদীস বর্ণনাকারী বলেন, তারপর নবী (সা.) আমার উরু কিংবা কাঁধে চাপড় মেরে বললেন, তোমরা এই মুহূর্তে এখানে বসে থাকার বিষয়টি যেমন সত্য, আমার এই বিবরণও তেমনই সত্য। (সুনানে আবু দাউদ, হা- ৪২৯৪)  

আগের পর্ব পড়তে : রাসূল (সা.) এর ভবিষ্যৎ বাণী (৬ষ্ঠ পর্ব)

বাইতুল মাক্বদিস (মসজিদুল আক্বসা) আবাদ হওয়ার অর্থ হলো সেখানে ইহুদিদের শক্তি প্রতিষ্ঠিত হবে। ১৯৬৭ খৃ. ইহুদিরা ফিলিস্তিন দখলে নিয়েছে এবং ২০১৮-এ জেরুজালেম শহর নিজেদের রাষ্ট্রের রাজধানী ঘোষণা করার মাধ্যমে বাইতুল মাক্বদিস (মাসজিদুল আক্বসা) নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিয়েছে। এটাই হলো বাইতুল মাক্বদিস (মাসজিদুল আক্বসা) আবাদ হওয়া। 

সাহাবি মিহজান ইবনে আদরা রা.. বলেন, আল্লাহর রাসূল (সা.) একদিন জনতার উদ্দেশে ভাষণ দান কালে “ইয়াওমুল খালাস” “ইয়াওমুল খালাস” “ইয়াওমুল খালাস” তিনবার বলেছেন। একজন সাহাবি জিজ্ঞেস করলেন, হে আল্লাহর রাসূল! “ইয়াওমুল খালাস” কী জিনিস? 

নবী (সা.) উত্তরে বললেন, দজ্জাল আসবে এবং উহুদ পাহাড়ের ওপর আরোহণ করবে। তারপর তার সাথীদের বলবে, তোমরা কি ঐ সাদা ভবনটি দেখতে পাচ্ছ? ঐটি আহমদ (মুহাম্মদ (সা.) ) এর মাসজিদ। তারপর সে মদিনার দিকে এগিয়ে আসবে। সে তার প্রতিটি পথে উন্মুক্ত তরবারি হাতে একজন করে ফেরেশতাকে দাঁড়ানো অবস্থায় দেখতে পাবে। 

সে “সাবখাতুল জুরুফে”র দিকে ফিরে যাবে এবং নিজ তাঁবুর গায়ে আঘাত করবে। তারপর মদিনায় তিনটি মৃদু ভূকম্পন হবে। যার ফলে প্রত্যেক মুনাফেক (কপট ) পুরুষ ও নারী, ফাসিক (পাপাচার) পুরুষ ও নারী মদিনা থেকে বেরিয়ে গিয়ে দজ্জালের সাথে যোগ দিবে। এভাবে মদিনা থেকে সকল প্রকার গুনাহগারদেরকে বের করে দিয়ে মাদিনা পাপাচারদের থেকে মুক্ত হয়ে যাবে। এটিই হলো “ইয়াওমুল খালাস” বা মুক্তির দিন। (মুস্তাদরাক হাকিম- ৪/৫৮৬)  

উল্লেখ্য যে, দজ্জাল মাসজিদে নববীকে তখন সাদা ভবন বা “হোয়াইট হাউজ” আখ্যা দিবে। নবী (সা.) যে সময় এ কথাটি বলেছিলেন, তখন মাসজিদটি সম্পূর্ণ সাদা মাটির তৈরি ছিল। আর এখন যদি মাসজিদে নবাবীকে দূর থেকে কিংবা কোনো উঁচু স্থান থেকে দেখা হয়, তাহলে অন্যান্য ভবনের মাঝে তাকে একটি সাদা ভবনই দেখা যাবে। 

কিছুদিন পূর্বে স্যাটেলাইটের সাহায্যে মাসজিদে নববীর একটি চিত্র ধারণ করা হয়েছিল, তাতেও মাসজিদে নববীকে সাদাই দেখা যাচ্ছে। আর বর্তমানে মাসজিদে নববীর দিকে সাতটি পথ খোলা আছে। ১- জেদ্দা থেকে আসার পথ। ২- মক্কা থেকে আসার পথ। ৩- রাবিগ থেকে আসার পথ। ৪- বিমানবন্দর থেকে আসার পথ। ৫- তাবুক থেকে আসার পথ। ৬, ৭- মফস্বল থেকে আসার দুটি পথ। 

লেখক - মাওলানা আখতারুজ্জামান খালেদ, ইমাম ও খতীব
 

প্রচলিত কুসংস্কারের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ব্যখ্যা, সমাজের কোন অমীমাংসিত বিষয়ে ধর্মতত্ত্ব, হাদিস, কোরআনের আয়াতের তাৎপর্য কিংবা অন্য যেকোন ধর্মের কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, সর্বপরি মানব জীবনের সকল দিকে ধর্মের গুরুত্ব নিয়ে লিখুন আপনিও- [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড