• শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন

আরব আমিরাতে এসএসসি পরীক্ষায় গত বছরের প্রশ্ন!

  অধিকার ডেস্ক    ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৪৭

আরব আমিরাত
আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় উপস্থিত শিক্ষার্থীরা (ছবি: সংগৃহীত)

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুটি বাংলাদেশি স্কুলে প্রথম দিন অনুষ্ঠিত হওয়া এসএসসি পরীক্ষায় গত বছরের (২০১৮) প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নজরে আসলে পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পর প্রশ্নপত্র পাল্টে দেওয়া হয়। পরীক্ষা শেষে পরীক্ষাকেন্দ্রের এমন অসচেতনতার বিষয় নিয়ে অভিযোগ করেন পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা।

এ বছর বাংলাদেশ দূতাবাস আবুধাবি ও দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেটের তত্ত্বাবধানে পরীক্ষায় আমিরাতের রাজধানীস্থ শেখ খলিফা বিন জায়েদ বাংলাদেশ ইসলামিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজে ৩৯ জন ও রাস আল খাইমা বাংলাদেশ ইংলিশ স্কুল অ্যান্ড কলেজে ২৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

পরীক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, পরীক্ষার শুরুতে ২০১৮ সালের পুরানো প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়। বিষয়টি কেন্দ্রে উপস্থিত ব্যক্তিদের নজরে আসলে পরবর্তীতে ৩০ মিনিট পর সেটি বদলে নতুন প্রশ্নপত্র দিয়ে পরীক্ষা নেওয়া হয়। কিন্তু এতে বাড়তি ৩০ মিনিট সময় পরবর্তীতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তাদের। 

এদিকে দূতাবাসের এক কর্মকর্তার ছেলেকে শুধুমাত্র বাড়তি ৩০ মিনিট সময় দেওয়ার বিষয় নিয়ে স্বজনপ্রীতিরও অভিযোগ উঠেছে। 

আরও পড়ুন: একদিনে দুই বার পরীক্ষা!

প্রথমদিনের পরীক্ষা কেন্দ্রে অধ্যক্ষ ছাড়াও কেন্দ্র পরিদর্শক ছিলেন উপ-অধ্যক্ষ আবদুর রহিম ও মোখলেছুর রহমান, শিক্ষক আবদুল গণি ছিদ্দিকি ও মুহাম্মদ জাকির।

মারাত্মক এ ভুলের বিষয়টি প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মীর আনিসুল হাসান স্বীকার করেছেন। 

এ বিষয়ে দূতাবাসের পক্ষ থেকে কেন্দ্র পরিদর্শনে আসা রাজনৈতিক কাউন্সিলর শহিদুজ্জামান ফারুকী ঘটনার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন। 
 

প্রবাস জীবন, আকাঙ্খা, প্রত্যাশা-প্রাপ্তির সমীকরণ সবই লিখুন দৈনিক অধিকারকে [email protected] আপনার প্রবাস জীবনের প্রতিটি ক্ষুদ্র অনুভূতিও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড