• সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ছুটি, ভ্রমণ ও জেট লেগ : তৈরি হয়ে নিন আগেভাগেই

০২ মার্চ ২০২০, ১২:৫৮
জেট লেগ
শরীরকে আগে থেকেই প্রস্তুত করুন (ছবি- প্রতীকী)

এই বছর মার্চ মাসে টানা কয়েকদিনের ছুটি পড়ে গিয়েছে। তাই বাড়তি আরও কয়েকদিনের ছুটি নিয়ে ঘুরতে যাওয়াটা খুব একটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কয়েকদিনের ছুটিতে দেশের বাইরে একটা ট্রিপ তো হতেই পারে। ঘোরাঘুরি নাহয় হলো, কিন্তু জেট লেগ? এই সমস্যাকে সামলাবেন কীভাবে? আগে থেকেই জেট লেগ থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসার উপায় সম্পর্কে জেনে নিন আর প্রস্তুত হয়ে থাকুন।

জেট লেগ কী?

আমাদের শরীর নির্দিষ্ট একটি ঘড়ির হিসেবে চলে। কিন্তু এমন একটি স্থানের কথা ভাবুন, যেটি ঘড়ির হিসেবে আমাদের থেকে ১০ ঘণ্টা পিছিয়ে। সেখানে যদি আপনি ভ্রমণ করেন, তাহলে স্বাভাবিকভাবেই আপনার শরীর যখন ঘুমিয়ে পড়তে চাইবে, তখন সেখানে ফকফকা দিন। একদিকে শরীর নিজের অভ্যাসমতো দিনের বেলাতেই ঘুমিয়ে পড়তে চাইবে। অন্যদিকে, চারপাশে আলো দেখে শরীর ঘুমাতেও পারবে না। এই দুটোর মিশেলে যেই অবস্থাটির ভেতরে আপনি পড়বেন সেটি হলো জেট লেগ। 

জেট লেগ থেকে বাঁচার উপায় কী?

শরীরকে আগে থেকেই প্রস্তুত করুন

পশ্চিমে বা পূর্বে- যেখানেই যান না কেন, নিজের বর্তমান স্থানের সঙ্গে সেগুলোর সময়কে মিলিয়ে নিন এবং সেই অনুযায়ী ঘুমানো ও খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে করে আপনার অভ্যস্ততা কিছুটা হলেও কমবে এবং জেট লেগের সঙ্গে আপনি দ্রুত মানিয়ে নিতে পারবেন।

সময়কে বদলে দিন

প্লেনে উঠেই আপনার ঘড়ির সময়কে যেখানে যাচ্ছেন সেটার সঙ্গে মিলিয়ে নিন। তাহলে প্লেনের সময়টাতেও আপনি নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করে রাখতে পারবেন পরবর্তী অভিজ্ঞতার জন্য। জেট লেগের সমস্যা যে একেবারে হবে না তা নয়। তবে এর প্রভাব কিছুটা হলেও কমে যাবে আপনার ছোট্ট এই কাজটির ফলে।

আলোর সঙ্গে মানিয়ে চলুন

আলো আমাদের শরীরকে জেগে থাকার ব্যাপারে প্রভাবিত করে। শরীরের যে ঘড়ি, সেটাও এই আলোর হিসাবে চলে। তাই, যেখানে যাচ্ছেন সেখানে দিন, নাকি রাত তার ওপরে নির্ভর করে আলোতে থাকবেন, নাকি অন্ধকারে তা ঠিক করুন। যদি আপনার গন্তব্যস্থলে এখন দিন হয়, তাহলে আলোর সংস্পর্শে থাকুন। আর সেখানে রাত হলে যতটা সম্ভব আলোর কাছ থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন।

আগে পৌঁছে যান, আগে ফিরে আসুন

আপনার ছুটির পরিকল্পনা যদি পাঁচদিনের হয়, তাহলে সপ্তাহ-খানিক আগে গন্তব্যস্থলে পৌঁছে যান। এতে করে পুরো দুটো দিন পাবেন আপনি পরিবর্তিত সময়ের সঙ্গে শরীরকে মানিয়ে নেওয়ার এবং জেট লেগকে কাটিয়ে ওঠার। একবার শরীর মানিয়ে গেলেই ঘোরাঘুরি শুরু করুন বাড়তি কোনো মানসিক বা শারীরিক সমস্যা ছাড়াই। 

ক্যাফেইন পান থেকে বিরত থাকুন

ক্যাফেইন আমাদের শরীরকে চাঙ্গা হতে সাহায্য করে এটা ঠিক। তবে একই সঙ্গে, এটি আমাদের শরীরের হিসাবকেও গোলমেলে করে দেয়। তাই ক্যাফেইন পান থেকে বিরত থাকুন। যদি দিনের বেলায় ঘুম আসে, তাহলে ঘণ্টাখানেক ঘুমিয়ে নিন। তবুও ক্যাফেইনের সহযোগিতা নেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

পরিমাণমতো খাবার খান

শর্করা, এই যেমন- রুটি, ভাত বা পাস্তার মতো ভারী খাবারগুলো আমাদের শরীরকে ক্লান্ত করে দেয়। আমরা ঘুমাই বেশি। তাই আপনার গন্তব্যস্থলে যদি রাত হয় তাহলে কার্বোহাইড্রেট গ্রহণ করুন। আর যদি আপনাকে এমন কোথাও যেতে হয় যেখানে এখন দিন, তাহলে ঘুম যেন কম আসে সেটা নিশ্চিত করতে হালকা খাবার খান। 

চলাচল করুন

আপনি যেখানে যাচ্ছেন, সেখানে রাত হোক বা দিন- শারীরিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখুন। যদি আপনার গন্তব্যস্থলে দিন হয়, তাহলে ভারী ব্যায়াম থেকে বিরত থাকুন। তবে সেখানে এখন রাত হলে কিছুটা বাড়তি কসরত করুন। এতে করে আপনার শরীর ঘুমিয়ে পড়ার জন্য পর্যাপ্ত ক্লান্ত থাকবে।

জেট লেগ যেমন থাকবে, তেমনি থাকবে ঘোরাঘুরির দারুণ সব পরিকল্পনাও। তাই সবকিছুকে সামলে এই ছুটিতে একটা অসাধারণ ট্রিপ হয়েই যাক। 

সূত্র- মাউন্ট এলিজাবেথ হসপিটাল

ওডি/এনএম

দেশ কিংবা বিদেশ, পর্যটন কিংবা অবকাশ, আকাশ কিংবা জল, পাহাড় কিংবা সমতল ঘুরে আসার অভিজ্ঞতা অথবা পরিকল্পনা আমাদের জানাতে ইমেইল করুন- [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড